৫০% বেতন কেটে নেওয়া হল এ রাজ্যের সরকারি কর্মচারীদের ,লকডাউনের জের কোষাগারে টান

Spread the love

এ মাসে অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীদের পেনশনের ২৫ শতাংশ কেটে নেওয়া হবে।
কোপ পড়তে চলেছে জনপ্রতিনিধের কবলেও।
লকডাউনের জেরে মে মাসে তেলেঙ্গানা সরকারের আয় চার ভাগের এক ভাগে এসে ঠেকেছে

ওয়েব ডেস্ক:- গোটা দেশ লকডাউনে জেরবার । বিভিন্ন রাজ্য সরকারের কোষাগারে টান ,বেতন দিতে হিম সিম অবস্থা। টানা লকডাউনের জেরে সংকুচিত হয়েছে আয়ের পথ। তীব্র টান পড়েছে রাজকোষে। এই পরিস্থিতিতে কোপ পড়তে চলেছে তেলেঙ্গানার সরকারি কর্মচারীদের বেতনে। প্রবল আর্থিক সংকট সামাল দিতে চলতি মে মাসে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের অর্ধেক বেতন কেটে নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও।
পরিসংখ্যান বলছে, লকডাউনের আগে পর্যন্ত প্রতি মাসে তেলেঙ্গানা সরকারের ন্যূনতম ১২,০০০ কোটি টাকা আয় হয়। কিন্তু লকডাউনের জেরে তা তলানিতে এসে ঠেকেছে। মে মাসে রাজ্য সরকারি কোষাগারে ঢুকেছে মাত্র ৩,১০০ কোটি টাকা। এর মধ্যে আছে কেন্দ্রীয় করের রাজ্যের অংশিদারিত্বের ৯৮২ কোটি টাকা।
উদ্ভূতপরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী কেসিআর জানিয়েছেন, ‘কর্মচারীদের বেতন এবং পেনশন দিতে গেলে সরকারের ৩,০০০ কোটি টাকার বেশি খরচ হবে। ফলে শূন্য হয়ে যাবে রাজকোষ। তখন সমস্ত সরকারি উন্নয়নমূলক কাজ স্তব্ধ হয়ে যাবে। এই পরিস্থিতিতে আমরা একটি কার্যকরি রণকৌশল গ্রহণ করেছি।’
রাজ্য সরকারের আর্থিক অনটন সামাল দিতে মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাওয়ের ‘রণকৌশল’ বিশদে জানার পরে মাথায় হাত তেলেঙ্গানার রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের। এমনকি স্বস্তিতে নেই অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীরাও। তেলেঙ্গানা সরকার জানিয়েছেন, চলতি মে মাসে অর্ধেক বেতন কেটে নেওয়া হবে সরকারি কর্মচারীদের। ফলে বেতনের বাকি অর্থেক টাকা হাতে পাবেন তাঁরা। একইভাবে এই মাসে অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীদের পেনশনের ২৫ শতাংশ কেটে নেবে সরকার। আউট সোর্সিং এবং ঠিকাকর্মীদের ক্ষেত্রে প্রাপ্য অর্থের ১০ শতাংশ কেটে নেওয়া হবে।

শুধু সরকারি কর্মচারী নন, জনপ্রতিনিধি এবং আইএএস, আইপিএস-এর মতো অল ইন্ডিয়া সার্ভিস অফিসারদের বেতনেও কোপ পড়তে চলেছে। জনপ্রতিনিধিদের মে মাসের বেতনের ৭৫ শতাংশ এবং অল ইন্ডিয়া সার্ভিস অফিসারদের বেতনের ৬০ শতাংশ কেটে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তেলেঙ্গানা সরকার।
আরও পড়ুন: বাড়ি ফেরাতে পরিযায়ীদের থেকে ট্রেন বা বাস ভাড়া নেওয়া যাবে না: সুপ্রিম কোর্ট
একইভাবে রাজ্যে দারিদ্রসীমার নীচে (BPL) বসবাসকারী পরিবারগুলিকে ১,৫০০ টাকা করে নগদ সহায়তা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তেলেঙ্গানা সরকার। মুখ্যমন্ত্রীর দফতর (CMO) থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, লকডাউন শিথিল হওয়ায় মজুর ও শ্রমিকদের জন্য দৈনিক কাজের সন্ধানের পথ খুলে গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে বিপিএল ভুক্ত পরিবারগুলির জন্য বিশেষ সরকারি আর্থিক সহায়তা বন্ধ করা হচ্ছে। এই সমস্ত পরিবার চলতি মে মাসের আর্থিক সহায়তা পাবে না। তবে মে মাস জুড়ে ১২ কিলো করে চাল দেওয়ার প্রকল্প অব্যহত থাকছে। সামাজিক সুরক্ষা পেনশন প্রকল্পেও কোনও পরিবর্তন আনা হচ্ছে না।

সৌজন্য:- এই সময় পত্রিকা

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.