কেন্দ্র ও রাজ্যের মন্ত্রীসভায় প্রতিবন্ধীদের নেওয়ার দাবি বেহালায়

Spread the love

কেন্দ্র ও রাজ্যের মন্ত্রীসভায় প্রতিবন্ধীদের নেওয়ার দাবি বেহালায়

পরিমল কর্মকার (কলকাতা) : বিশ্ব প্রতিবন্ধী দিবসকে স্মরণে রেখে রবিবার বিকেলে বেহালায় ব্লাইন্ড স্কুলের পাশেই এক সমাবেশে কেন্দ্র ও রাজ্যের মন্ত্রীসভায় প্রতিবন্ধীদের নেওয়ার দাবি উঠল। এই সমাবেশের আয়োজক ছিল বেহালা দৃষ্টিহীন শিল্পনিকেতনের সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন কমিটি। এই সমাবেশের প্রধান অতিথি ছিলেন বিবেকানন্দ কলেজের ইতিহাস বিভাগের প্রধান অধ্যাপক অরবিন্দ পাত্র। উল্লেখ্য, তিনি নিজেও একজন দৃষ্টিহীন ব্যাক্তি।

অধ্যাপক অরবিন্দ পাত্র তার বক্তব্যে কেন্দ্র ও রাজ্যের মন্ত্রীসভায় প্রতিবন্ধীদের প্রতিনিধিত্বের দাবি তুলে বলেন, “নীতি নির্ধারণের সমস্ত পর্যায়ে প্রতিবন্ধীদের প্রতিনিধিত্ব না হলে প্রতিবন্ধীদের যথার্থ কল্যাণ অধরাই থেকে যাবে….।”

অনুষ্ঠানের অন্যতম বক্তা ঝর্না অধিকারী পিছিয়ে থাকা দৃষ্টিহীনদের স্বনির্ভর করে তোলার জন্য ব্যাংক-ঋণের ব্যাপারে ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে যথেষ্ট সহানুভূতিশীল হওয়ার আবেদন জানান। এমনকি প্রতিবন্ধীদের কর্মে-নিয়োগের ক্ষেত্রে জোর দেওয়ার কথাও তিনি তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ছিলেন বেহালা দৃষ্টিহীন শিল্পনিকেতন সুবর্ন জয়ন্তী উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক বিশিষ্ঠ শিক্ষক রাজা ফৈয়াজ আলম। তিনি এবছরের প্রতিবন্ধী দিবসের স্লোগানের কথা স্মরণ করিয়ে দেন। এবছরের স্লোগান “কোভিড-১৯ উত্তর পৃথিবীতে স্থায়ী উন্নয়ন, প্রযুক্তি প্রসারণে প্রতিবন্ধীদের নেতৃত্বে যোগদান”।

এদিন প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও বর্তমানে সংগঠনের সম্পাদক স্বপন চট্টোপাধ্যায় ছাড়াও বক্তব্য রাখেন সহ সভাপতি মনোতোষ মুখার্জী, কার্যকরী সদস্য অরবিন্দ ভট্টাচার্য প্রমুখ। অনুষ্ঠানে দৃষ্টিহীনদের মধ্যে ২০২২ সালের “ব্রেইল ক্যালেন্ডার” এবং কম্বল বিতরন করা হয়।

এদিন এই সমাবেশে প্রতিবন্ধী শিল্পীরা এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। এদের মধ্যে ছিলেন, টুকু দাস, কুমকুম চক্রবর্ত্তী, সমীর মণ্ডল, শমীন্দ্রনাথ লাহিড়ী, শম্ভু মাইতি, পরিমল দাস, বিল্বমঙ্গল বেরা প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.