উত্তরপ্রদেশের কুখ্যাত ডন আট পুলিশকর্মী খুনের মূল অপরাধী বিকাশ দুবে অবশেষে গ্রেফতার  

Spread the love

নিউজ ডেস্ক:- উত্তরপ্রদেশের কুখ্যাত ডন আটজন পুলিশকর্মী খুনের মূল অপরাধী বিকাশ দুবে অবশেষে গ্রেফতার ।    মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) উজ্জয়ন থেকে শেষপর্যন্ত গ্রেফতার করা হল বেশ কিছুদিন ধরে পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে পালানো কুখ্যাত মাফিয়া বিকাশ দুবেকে (Vikas Dubey)। উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) ওই গ্যাংস্টারের বিরুদ্ধে সম্প্রতি কানপুরে ৮ পুলিশ কর্মী খুনের অভিযোগ উঠেছে। কয়েকদিন ধরেই ওই মাফিয়ার খোঁজে ৩ রাজ্য তোলপাড় করছিল পুলিশ। বৃহস্পতিবার পুলিশের জালে ধরা পড়ে বিকাশ। একই সময়ে উত্তরপ্রদেশে পুলিশি এনকাউন্টারে খতম হয়েছে তাঁর দুই শাগরেদও। বুধবার বিকাশ দুবের অন্যতম ঘনিষ্ঠ সহযোগী আমন দুবেকেও খতম করে পুলিশ। গত শুক্রবার খুন, অপহরণ-সহ ৬০ টি মামলায় অভিযুক্ত বিকাশ দুবেকে গ্রেফতার করার জন্যেই কানপুরের চৌবেপুর এলাকার বিকরু গ্রামে বিশাল একটি পুলিশ দল অভিযান চালায়। সেই সময়েই পাল্টা আক্রমণে করে ওই মাফিয়া। তাঁর চালানো গুলিতে মৃত্যু হয় ৮ পুলিশ কর্মীর। তারপরেই এলাকা ছেড়ে চম্পট দেয় সে।
মঙ্গলবারও একটুর জন্যে নাগাল গলে পালিয়ে গেছিল বিকাশ দুবে। পুলিশ জানিয়েছে, উত্তরপ্রদেশ পুলিশের আট কর্মীকে খুন করা ওই মাফিয়া দিল্লি-মথুরা হাইওয়ের উপর ফরিদাবাদের বাধকাল এলাকার একটি হোটেলে লুকিয়ে ছিল। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ওইদিন রাতেই সেই হোটেলে হানা দেয় এসটিএফের দল। উত্তরপ্রদেশ পুলিশের প্রায় ৩০-৩৫ জন অফিসার সাধারণ পোশাকে এই রেড চালায়। তবে পুলিশ পৌঁছনোর আগেই সেই তল্লাট থেকে গা ঢাকা দেয় কুখ্যাত অপরাধী। কিন্তু বৃহস্পতিবার আর পুলিশের জাল কেটে বেরোতে পারেনি সে।

বুধবার উত্তরপ্রদেশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হয় বিকাশের ‘ডানহাত’ বলে পরিচিত আমন দুবেও।
গত সপ্তাহে কানপুরের কাছে বিকরু গ্রামে বিকাশের খোঁজে যায় পুলিশের একটি দল। গ্রামে ঢোকার পথে জেসিবি মেশিন রেখে পুলিশের পথ আটকেছিল দুষ্কৃতী বাহিনী। গাড়ি থেকে নেমে পুলিশকর্মীরা গ্রামে ঢোকার চেষ্টা করলে তাঁদের উপর এলোপাথাড়ি গুলি চালায় বিকাশ দুবের দলবল। যার জেরে ৮ পুলিশ কর্মীর মৃত্যু হয়।

এই ঘটনায় স্থানীয় পুলিশের একাংশ বিকাশের কাছে অভিযানের খবর আগেই পৌঁছে দিয়েছিল বলে অভিযোগ ওঠে। শুরু হয় তদন্ত। মঙ্গলবার চৌবেপুর থানার সমস্ত পুলিশকর্মী সহ মোট ৬৮ জনকে বদলি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এই নিয়ে সংবাদপত্রে হয়েছিল তোলপাড় উঠেছিল  নিন্দার ঝড় ।

 

 

সৌজন্য :- NDTV Bangla

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.