বিজেপি নেত্রী এক সরকারী আধিকারিক কে জুতোপেটার ভিডিও ভাইরাল হতেই বিতর্কের ঝড়

Spread the love

প্রকাশ্যে আধিকারিককে জুতোপেটা, বিজেপি নেত্রীর ভিডিও ভাইরাল হতেই বিতর্কের ঝড়

ওয়েব ডেস্ক:- এক আধিকারিককে জুতোপেটা করছেন বিজেপি নেত্রী হয়ে ওঠা টিক-টক স্টার সোনালী ফোগাট। মুখ দিয়ে অনর্গল গালিগালাজ বেরচ্ছে। পাশে নীরব দর্শকের মতো দাঁড়িয়ে পুলিশ। শুক্রবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এমনই দৃশ্যের ভিডিও। যা নিয়ে তৈরি হয়েছে তুমুল বিতর্ক।

ঘটনা হরিয়ানার হিসারের। এদিন বলসামান্ড মান্ডি পরিদর্শনে গিয়েছিলেন বিজেপি নেত্রী। সেখানেই ঘটে এই ঘটনা। দেখা যায়, হিসার মার্কেট কমিটির সচিব সুলতান সিংকে লাগাতার জুতো দিয়ে মারছেন সোনালী। কখনও বিজেপি নেত্রীর চপ্পল গিয়ে লাগছে সচিবের মুখে তো কখনও পেটে। সেই সঙ্গে গালিগালাজ। মাঝে একবার বলে উঠলেন, “কোন সাহসে আমাকে কুকথা বলো?” হাত দিয়ে কোনওক্রমে নিজের মুখ ঢাকার চেষ্টা করছেন সুলতান সিং। ভিডিওর শেষে পুলিশের দিকে তাকিয়ে সোনালী ফোগাটকে বলতে শোনা যায়, “এর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করুন।” কিন্তু কেন নিজের মেজাজ হারালেন নেত্রী? কেন প্রকাশ্যেই নিজের পায়ে চপ্পল খুলে মারধর করতে শুরু করলেন একজনকে !

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সোনালী জানান, বলসামান্ড মান্ডিতে ঢুকতেই মার্কেট কমিটির সচিব তাঁকে অসম্মানজনক কথা বার্তা বলেন। তাঁর মতো সুন্দরী মহিলারা ঘুরলে নাকি বাকিদের কাজে ব্যাঘাত ঘটবে। এই মন্তব্যেই বেজায় চটেন তিনি। “সচিব সুলতান সিং এবং কয়েকজন কৃষককে নিয়ে আমি এখানকার কাজকর্ম ঠিকঠাক চলছে কি না, দেখতে এসেছিলাম। তখনই সুলতান আমায় বলে, আমি একজন সুন্দরী মহিলা, কৃষকদের জন্য মান্ডিতে আমার এভাবে ঘোরাফেরা করাটা ঠিক হচ্ছে না। নিজেকে আটকানোর চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু ওর বলা কথাগুলো কানে বাজছিল। সেই জন্যই মারধর করি। পরে আমার থেকে নিঃস্বার্থ ক্ষমাও চেয়ে নেয়। কিন্তু আমি পুলিশকে লিখিত অভিযোগ দায়ের করতে বলেছি।” বলেন সোনালী।

জানা গিয়েছে, হরিয়ানার হিসার জেলায় আদমপুরের কৃষক মার্কেটে পাঁচ-ছ’জন সঙ্গীকে নিয়ে পরিদর্শনে গিয়েছিলেন বিজেপি নেত্রী সোনালি ফোগত। কৃষকদের নানান অভিযোগ সম্বলিত একটি একটা লম্বা লিস্ট নিয়ে তিনি মার্কেট সচিব সুলতান সিংহের কাছে যান। সোনালির অভিযোগ, মার্কেট সচিব তাঁকে ড্রামাবাজ বলে কটাক্ষ করেন। আর তার পরেই কার্যত ক্ষোভে ফেটে পড়েন
এর পর ক্যামেরার সামনেই নিজের চপ্পল খুলে তা দিয়ে পেটাতে থাকেন সুলতান সিংহকে। ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, ওই বিজেপি নেত্রীর চপ্পলের আঘাত এড়াতে নিজের মাথা-মুখ ঢেকে বসে রয়েছেন ওই আধিকারিক। জুতো পেটার সময় বিজেপি নেত্রীকে বলতে শোনা যায়, তোমার গালি শোনার জন্য কাজ করছি? আমি বাইরে বেরিয়ে কাজ করছি.. কী ভেবেছেন আমাকে? তোমাদের মতো মানুষের বেঁচে থাকার অধিকারই নেই! এদিকে ঘটনায় পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের ওই সরকারী আধিকারিক।

হিসারের ডেপুটি কমিশনার যোগিন্দর শর্মা জানান, বিজেপি নেত্রীর তরফে ইতিমধ্যেই তাঁরা অভিযোগ পেয়েছেন। পালটা অভিযোগ জানিয়েছেন সুলতান সিংও। তাঁর দাবি, কাজ শুরু হতে খানিকটা দেরি হবে বলাতেই নাকি রেগে যান সোনালী। এমনকী নির্বাচনের সময় সাহায্য না করার জন্যও তাঁকে কটাক্ষ করা হয়। গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান তিনি। গোটা বিষয়টির নিন্দা করে হরিয়ানা রাজ্য বিজেপি। সুভাষ বারালা জানান, সোনালী ফোগাটের সঙ্গে কথা বলবেন তাঁরা। ঘটনা সামনে আসতেই সুর চড়ায় কংগ্রেস। প্রশ্ন তোলা হয়, মুখ্যমন্ত্রী এর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.