পার্লে জি কোম্পানিতে শিশু শ্রমিক শিশু শ্রম দিবসে উদ্ধার

Spread the love

অয়ন বাংলা,ওয়েব ডেস্ক:- শিশু শ্রমিক নিয়ে বড়বড় ফ্যাক্টরিতে কাজ করানো যেন স্বাভাবিক ঘটনা ।আইন কে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে এই কাজ হয়ে চলেছে। বিস্কুটের প্যাকেটের গায়ে শিশুর গোলগাল মুখের ছবি। এটুকু বললেই আর বলতে হয় না এটি ‘পার্লে জি’র বিস্কুটের প্যাকেট। একটি শিশুর মুখই যেখানে একটি জনপ্রিয় বিস্কুট প্রস্তুতকারক সংস্থার প্রচারের মুখ হয়ে উঠেছে, সেখানে সেই ‘পার্লে জি’র বিস্কুটের কারখানা থেকেই উদ্ধার হল ২৬টি শিশু, যারা আসলে কারখানার শিশু শ্রমিক।
জানা গিয়েছে, ছত্তীসগড়ের রাজধানী রায়পুরের অমাশিবনি এলাকায় যে ‘পার্লে জি’র কারখানা রয়েছে, সেখান থেকে ২৬ শিশু শ্রমিককে উদ্ধার করেছে স্থানীয় পুলিশ৷ উদ্ধার হওয়া শিশুদের বয়স ১৩ থেকে ১৬ বছরের মধ্যে। পুলিস সূত্রে খবর, এই সব কিশোর-কিশোরীদের দিয়ে মাসিক ৫ থেকে ৭ হাজার টাকা মজুরির বিনিময়ে প্রতিদিন প্রায় ১২ থেকে ১৪ ঘণ্টা কাজ করানো হতো।
জানা গিয়েছে, ১২ জুন ছিল শিশু শ্রম বিরোধী দিবস। সেই উপলক্ষে জেলা জুড়ে শিশু শ্রমের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে রাজ্যের মহিলা ও শিশু কল্যাণ দফতর। এর জন্য বিশেষ টাস্ক ফোর্স গঠন করা হয়। ‘বচপান বাঁচাও’ নামের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের এক সদস্যের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে অমাশিবনি এলাকার ওই পার্লে জি’র কারখানা অভিযান চালানো হয়।পুলিস জানিয়েছে, অমাশিবনি এলাকার ‘পার্লে জি’র কারখানা থেকে উদ্ধার হওয়া শিশুদের ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা, মধ্যপ্রদেশ বা অন্ধ্রপ্রদেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আনা হয়েছে। আপাতত উদ্ধার হওয়া শিশুদের স্থানীয় একটি সরকারি হোমে রাখা হয়েছে। ওই কারখানার মালিকের বিরুদ্ধে জুভেনাইল আইনের নানা ধারায় একাধিক মামলা দায়ের করেছে পুলিস।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.