সিভিক ভলান্ঢিয়ার নিয়োগের পথে রাজ্য সরকার বিরোধীরা সরব

Spread the love

নিউজ ডেস্ক,অয়ন বাংলা :- আবার নিয়োগ হচ্ছে সিভিক ।রাজ্য সরকার এক বড় ঘোষণা করতে চলেছে। ক্ষমতায় আসার পর পুলিশের বাড়তি কাজের দায়িত্ব কমানোর পাশাপাশি কর্মসংস্থানের কথা মাথায় রেখে সিভিক নিয়োগের পথে হাঁটে রাজ্য সরকার। পরে ধীরে ধীরে তাঁদের সিভিকদের বেতনও বৃদ্ধি করেন তিনি। কিন্তু রাজ্য সরকারের এই সিভিক উদ্যোগ নিয়ে বিতর্ক কিন্তু রয়েই গিয়েছে। আর এই সবকিছুকে ঝেড়ে ফেলে ফের একবার কর্মসংস্থানের সচেষ্ট হলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পুলিশের পর এবার রাজ্যের গোয়েন্দা বিভাগেও সিভিক ভলেন্টিয়ার নিয়োগের রাস্তায় হাঁটলেন তিনি। রাজ্য সরকারের তরফে এবার বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানানো হল, ৫ হাজার ২৮৫ জন সিভিক ভলেন্টিয়ার নিয়োগ করা হবে রাজ্যের গোয়েন্দা বিভাগে।
সম্প্রতি এই বিষয়ে নবান্নের তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে এই তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে, যেখানে বলা হয়েছে ৫ হাজার ২৮৫ জন সিভিক ভলেন্টিয়ার নিয়োগ করা হলেও এর জন্য বাইরে থেকে নতুন করে কাউকে নিয়োগ করা হবে না। রাজ্যে যারা বর্তমানে পুলিশ সিভিক ভলেন্টিয়ার হিসাবে রয়েছেন সেখান থেকেই গোয়েন্দা বিভাগের এই শূন্যপদে নিয়োগ করা হবে। এবং পুলিশ সিভিক ভলেন্টিয়ারের ওই শূন্যপদ ফাঁকাই রাখা হবে। এই প্রসঙ্গে রাজ্যের তরফে জানানো হয়েছে, রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় সর্বদা গোলমাল লেগেই রয়েছে। যার আগাম রিপোর্ট পুলিশের কাছেও থাকে না। পাশাপাশি গোয়েন্দা বিভাগেও কম কর্মী থাকার কারণে সঠিক খবর পাওয়া যায় না। এর জেরেই গ্রাম ও শহরতলী এলাকাগুলিতে গোয়েন্দা বিভাগকে আরও শক্তিশালী করে তুলতে এই পদক্ষেপ। ওই সিভিক পুলিশ নিয়োগের জন্য ইতিমধ্যেই ডিজির কাছে নির্দেশ পাঠিয়ে দিয়েছে নবান্ন। তবে এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি। বিজেপির তরফে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা,বাদানুবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.