অস্বস্তিতে যোগী সরকার সাংবাদিক সিদ্দিক কাপ্পানের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রমাণ করতে না পারায় মামলা খারিজ করে দিল আদালত

Spread the love

ওয়েব ডেস্ক :-   সাংবাদিক সিদ্দিক কাপ্পানের বিরুদ্ধে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের আনা শান্তিভঙ্গের অভিযোগ খারিজ খারিজ করে দিল উত্তরপ্রদেশের আদালত। এদের বিরুদ্ধে শান্তিভঙ্গের অভিযোগ আনলেও গত ৬ মাসের মধ্যে কোনও প্রমাণ জোগাড় করতে পারেনি যোগীরাজ্যের পুলিশ। যার ফলে ৬ মাস পর কেরলের ওই সাংবাদিক কলঙ্কমুক্ত হলেন।

উল্লেখ্য, গত বছর ৫ অক্টোবর হাথরসের নির্যাতিতার সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার পথে চার সঙ্গী-সহ কাপ্পানকে গ্রেপ্তার করে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। পিএফআই নামক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্য মুজফফরনগরের আতিউর রহমান, বাহরাইচের মাসুদ আহমেদ, রামপুরের আলম নামের তিনজনও গ্রেপ্তার হন। পুলিশের দাবি, বাড়ির ঠিকানা-সহ নানা বিষয়ে কাপ্পান মিথ্যা তথ্য দিয়েছিলেন। উত্তরপ্রদেশ সরকারের দাবি, পিএফআই এবং তাদের ছাত্র শাখার অন্য কর্মীদের সঙ্গে হাথরস যাচ্ছিলেন কাপ্পান। তাঁদের কাছে আপত্তিকর সামগ্রী ছিল। ওই এলাকার শান্তিভঙ্গ করাই আসল উদ্দেশ্য ছিল কেরলের ওই সাংবাদিকের। কাপ্পানের বিরুদ্ধে বিতর্কিত UAPA ধারায় মামলা করে যোগী সরকার। যার ফলে দীর্ঘদিন জামিনও পাননি কেরলের ওই সাংবাদিক।

কিন্তু মঙ্গলবার আদালতে সরকারপক্ষের আইনজীবী জানিয়ে দেন, ৬ মাসের সময়সীমা পেরনোর পরও কাপ্পানের বিরুদ্ধে তদন্ত শেষ করতে পারেনি পুলিশ। ফলে, কাপ্পানের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিম্ন আদালত খারিজ করে দেয়। মথুরার ওই আদালত জানিয়েছে, কাপ্পানকে যে ধারায় আটক করা হয়েছিল, সেই ধারা অনুযায়ী তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত ৬ মাসের মধ্যে শেষ করতে হত। কিন্তু পুলিশ যেহেতু ৬ মাসে তদন্ত শেষ করতে পারেনি, তাই এই মামলা খারিজ করা হচ্ছে। কেরলের ওই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আর কোনও পদক্ষেপ করা যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.