স্কুলের আরবি শিক্ষক পদ অসংরক্ষিত করার দাবিতে সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশনের ডেপুটেশন

Spread the love

স্কুলের আরবি শিক্ষক পদ অসংরক্ষিত করার দাবিতে সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশনের ডেপুটেশন।

ওয়েব ডেস্ক:-    স্কুল সার্ভিস কমিশনের উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় আরবি বিষয়ে সংরক্ষিত আসন গুলিতে উপযুক্ত কর্মপ্রার্থী না থাকায় ওই সংরক্ষিত আসনগুলি বিধি অনুযায়ী অসংরক্ষিত আসনে রূপান্তর করার দাবিতে স্কুল সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান ডক্টর সিদ্ধার্থ মজুমদারকে স্মারকলিপি দিল সারা বাংলা সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশন।

ফেডারেশনের রাজ্য সম্পাদক মুহাম্মদ কামরুজ্জামান বলেন রাজ্যের স্কুলগুলিতে আরবি বিষয়ের বহু আসন প্রায় এক দশক ধরে SC, ST, OBC-B ও বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন (PH) কর্মপ্রার্থীদের জন্য সংরক্ষিত আসন হিসেবে বরাদ্দ হয়ে আছে। কিন্তু উপযুক্ত কর্মপ্রার্থী না পাওয়ায় ওই সংরক্ষিত আসন গুলিতে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হচ্ছে না। ফলে স্কুলগুলিতে শিক্ষার্থীদের আরবি ভাষার পাঠ গ্রহণ ব্যাহত হচ্ছে। পাশাপাশি রাজ্যের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থী বা কর্মপ্রার্থীদের বঞ্চনার শিকার হতে হচ্ছে। Direct Recruitment Rules Dereserve বিধি অনুযায়ী(No-36020/2/2007EstRes) Dated7th December 2009, চলতি নিয়োগ প্রক্রিয়ায় ওই সংরক্ষিত আসন গুলি সাধারণ অসংরক্ষিত আসনে রূপান্তর করার একান্ত আবেদন জানাচ্ছি। যেহেতু রাজ্যের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী আরবি ভাষা শিক্ষার প্রসার ও বিস্তারের লক্ষ্যে নানান কর্মসূচি হাতে নিয়েছেন এবং দিনে দিনে এই ভাষা শিক্ষার্থীর সংখ্যা বৃদ্ধি হওয়ায় রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় স্নাতক ও স্নাতকোত্তর কোর্স শুরু করেছেন।

আপনাকে জানাচ্ছি যে ইতিমধ্যে রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ সংরক্ষিত আসনে কর্মপ্রার্থী না থাকায় ওই আসনগুলি অসংরক্ষিত আসনে রূপান্তর করে দিয়েছেন। (Memo No 740/BPE/2021)Dated 06/07/2021)

আমাদের দাবি

১. স্কুল সার্ভিস কমিশনের চলতি নিয়োগ প্রক্রিয়ায় উচ্চ প্রাথমিকে (v- viii) আরবি বিষয়ের সংরক্ষিত আসন গুলিকে অসংরক্ষিত আসনে রূপান্তর করতে হবে।

২. সংরক্ষিত আসন গুলোতে উপযুক্ত কর্মপ্রার্থী না থাকায় স্কুলগুলিতে আরবি ভাষা শিক্ষার পাঠদান প্রক্রিয়া ব্যাপকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। অবিলম্বে শিক্ষার্থীদের স্বার্থে এই সমস্যার আশু সমাধান প্রয়োজন।

৩. SC, ST, OBC-B ও বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন (PH) কর্মপ্রার্থীদের আরবি বিষয়ে আসন সংরক্ষিত হবার ফলে তারাও অন্য বিষয়ে সংরক্ষণের সুযোগ হারাচ্ছেন । এই জনগোষ্ঠী গুলিকে অন্য বিষয়ে সংরক্ষিত আসন বরাদ্দ হলে তারা সংরক্ষণের ১০০ শতাংশ সুবিধা ভোগ করবে। তার সু ব্যবস্থা করতে হবে।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশনের সহ সম্পাদক হাফেজ নাজমুল আরেফীন, প্রাক্তন মাদ্রাসা ছাত্রনেতা আহসানুল বারী, আব্দুর রহমান প্রমূখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.