বাংলা রিপোর্টার্স গিল্ড-এর উদ্যোগে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

Spread the love

বাংলা রিপোর্টার্স গিল্ড-এর উদ্যোগে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

নিজস্ব প্রতিনিধি (কলকাতা) : পূর্ব ঘোষণা মতো বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) বৃষ্টি-ভেজা দুপুরে বাংলা রিপোর্টার্স গিল্ড-এর উদ্যোগে বেহালা সোদপুরে সংগঠনের প্রধান কার্যালয়ে ত্রাণ বিতরণ করা হলো। এই সংগঠনের সদস্য সহ বিপদাপন্ন বহু মানুষকে চাল, ডাল, আলু ইত্যাদি খাদ্য সামগ্রী দিয়ে সহায়তা করা হয়।

প্রসঙ্গত: গতকাল থেকে প্রচণ্ড বর্ষনে বেহালা, ঠাকুরপুকুর, পর্ণশ্রী হরিদেবপুরের বিস্তীর্ণ এলাকা এখন জলমগ্ন। তবে পূর্ব ঘোষণা মতো এইদিন বাংলার অন্যতম সাংবাদিক সংগঠন বাংলা রিপোর্টার্স গিল্ড-এর উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ করা হয় বলে জানা গেল। এদিন সংগঠনের সদস্য ও এলাকার বহু বিপদাপন্ন মানুষের হাতে চাল, ডাল, আলু ইত্যাদি খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন সংগঠনের সভাপতি ডঃ অরুণ কুমার। বিতরণ কার্যে উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক পরিমল কর্মকার ও বিশিষ্ঠ মানুষেরা।

এদিন বাংলা রিপোর্টার্স গিল্ড এর সাধারণ সম্পাদক পরিমল কর্মকার বলেন, “প্রচণ্ড বৃষ্টির জন্য আমাদের সদস্যরা অনেকেই ত্রাণ নিতে আসতে পারেন নি। তাই এইদিন আমরা প্রথম পর্যায়ের ত্রাণ সহায়তা দিলাম। দ্বিতীয় ও শেষ পর্যায়ের ত্রাণ শীঘ্রই আমরা আমাদের সদস্য ও সাংবাদিক বন্ধুদের হাতে তুলে দেব।”

পরিমলবাবু জানান, প্রথম পর্যায়ে যাদের অফুরন্ত ভালোবাসা ও সহযোগিতায় এই কর্মকাণ্ড সার্থক হয়েছে তারা হলেন বেহালা পূর্বের বিধায়িকা রত্না চ্যাটার্জী, ১৩২ নম্বর ওয়ার্ডের কো-অর্ডিনেটর সঞ্চিতা মিত্র, ১৪২ নম্বর ওয়ার্ডের কো-অর্ডিনেটর রঘুনাথ পাত্র,  ১১৪ নম্বর ওয়ার্ডের কো-অর্ডিনেটর বিশ্বজিৎ মণ্ডল ,প্রাক্তন ১৪ নম্বর বোরো চেয়ারম্যান তথা ১২৯ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর অঞ্জন দাস, প্রাক্তন মেয়র পারিষদ তথা ১১৮ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর তারক সিং,শ্রদ্ধা হেল্থ কেয়ার প্রাইভেট লিঃ-এর কর্ণধার সঞ্জয় কেজরিওয়াল, বেহালা কিশোর ভারতী স্কুলের সম্পাদক সুব্রত সরকার, পান্না কিচেন-এর কর্ণধার সমীর সাধুঁখা প্রমুখ।

সামাজিক কাজে কতটা আনন্দ ও মানুষের সহযোগিতা পাওয়া যায়… এমনই এক প্রশ্নের উত্তরে পরিমলবাবু জানান, ভালো কাজে ভালো মানুষের সহযোগিতা সবসময়েই পাওয়া যায়। আবার এমনও কিছু সমাজসেবীর মুখোশ পড়া মানুষ আছেন যারা সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েও শেষ মুহূর্তে পাশ সরে যান। যারফলে আয়োজকরা সমস্যার মধ্যে পড়ে যান। আর সবচে়য়ে বড় কথা, বিপদাপন্ন মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারলে নিজেকে ধন্য মনে হয়…।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.