জলঙ্গি কাণ্ডে গ্রেপ্তার মূল অভিযুক্ত মিলটন , CAA বিরোধী আন্দোলনে গুলি করে খুনের ঘটনায়

Spread the love

অতুলচন্দ্র নাগ, ডোমকল: জলঙ্গি কাণ্ডে গ্রেপ্তার মূল অভিযুক্ত সাহেবনগর পঞ্চায়েতের প্রধান তামান্না ইয়াসমিনের স্বামী মিলটন শেখ। শুক্রবার রাতে নিউটাউনের একটি চায়ের দোকান থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাকে। ২৯ জানুয়ারি জলঙ্গিতে সিএএ বিরোধী আন্দোলনে গুলি করে সালাউদ্দিন শেখ নামে এক আন্দোলনকারীকে খুনের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে মিলটনকে। ঘটনায় জড়িত অন্যান্যদের খোঁজে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

সংশোধিত নাগরিকত্ব বিলে রাষ্ট্রপতি সিলমোহর দেওয়ার পর থেকেই বিক্ষোভের আগুনে ফুঁসতে শুরু করে মুর্শিদাবাদ। রেল অবরোধ, ট্রেনে আগুন লাগিয়ে বিক্ষোভ লেগেই ছিল। এই পরিস্থিতিতে ২৯ জানুয়ারি সকালে জলঙ্গির সাহেবনগরে রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান CAA বিরোধীরা। সেই সময় অবরোধে বাধা দেয় আরেকপক্ষ। তাতেই দু’পক্ষের মধ্যে বচসা বেঁধে যায়। কিছু বুঝে ওঠার আগেই অবরোধকারীদের কানে পৌঁছয় গুলির শব্দ। গুলিবিদ্ধ হয়ে রাস্তায় লুটিয়ে পড়েন সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী বৃদ্ধ। স্থানীয়দের নজরে আসার পর তাঁকে উদ্ধার করা হয়। তবে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই মৃত্যু হয় তাঁর। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় সালাউদ্দিন শেখ নামে এক যুবককে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কিছুক্ষণ চিকিৎসা চলার পরই মৃত্যু হয় তাঁরও।

এই হামলার ঘটনাতে নাম জড়িয়েছিল তৃণমূলের ব্লক সভাপতি তহিরুদ্দিন শেখের। তদন্তে নেমে তহিরুদ্দিনের ভাই-সহ ৪ জনকে গ্রেপ্তারও করে পুলিশ। এরপরই সাহেবনগর পঞ্চায়েতের প্রধানের স্বামী মিলটন শেখের বিরুদ্ধে ছেলেকে খুনের অভিযোগ তুলে পুলিশের দ্বারস্থ হন মৃত সালাউদ্দিনের বাবা। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই শুক্রবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে মিলটনকে। সূত্রের খবর, শনিবারই আদালতে তোলা হবে তাকে। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, ঘটনার তদন্ত চলছে। শীঘ্রই অন্য অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হবে। প্রসঙ্গত, ঘটনার পর দীর্ঘদিন পেরিয়ে গেলেও এখনও বেপাত্তা মূল চক্রী তহিরুদ্দিন শেখ।  

সৌজন্য :- প্রতিদিন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.