করোনাক্রান্ত ১০ হাজার রোগীর জন্য আইসোলেশন সেন্টার স্থাপনে জায়গা ও প্রয়োজনীয় অবকাঠামো প্রদানের প্রস্তাব দিল জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ

Spread the love

.নিউজ ডেস্ক:- করোনা ভাইরাস নিয়ে গোটা বিশ্ব আজ গুরুতর সমস্যার সামনে। বিশ্বব্যাপী হানা দেয়া করোনার ভয়াল থাবা জেঁকে বসেছে ভারতের উপর। এ ভাইরাসের কবলে পর্যদুস্ত দেশটি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আহ্বানে ভারতজুড়ে চলছে টানা ২১ দিনের লকডাউন। এ সময়ে দেশটি সবচেয়ে বেশি সংকটে ভুগছে চিকিৎসা সরঞ্জামাদির। এই দুর্যোগ মুহূর্তে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রতি চিঠি লিখে করোনাক্রান্ত ১০ হাজার রোগীর জন্য আইসোলেশন সেন্টার স্থাপনে জায়গা ও প্রয়োজনীয় অবকাঠামো প্রদানের প্রস্তাব দিয়েছে দেশটির সর্ববৃহৎ মুসলিমপ্রধান সংগঠন জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ।

এছাড়াও অস্থায়ী চিকিৎসাকেন্দ্র স্থাপনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে সবধরণের সহোযোগিতা করার প্রস্তাব দিয়েছে সংগঠনটি।

ইতোমধ্যেই পুরো ভারত জুড়ে করোনা উদ্ভূত বর্তমান পরিস্থিতিতে ভারতের নিম্ন আয়ের নাগরিক ও গরিবদের জন্য ত্রাণ তহবিল গঠনের ঘোষণা দিয়েছেন জমিয়ত উলামায়ে হিন্দের সেক্রেটারী জেনারেল মাওলানা সাইয়্যিদ মাহমুদ আস’আদ মাদানী।

সোমবার (৩০ মার্চ) জমিয়তে উলামা হিন্দের সেক্রেটারী নিয়ায আহমদ ফারুকী স্বাক্ষরিত এক বিবৃতি এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের জেনারেল সেক্রেটারী মাওলানা মাহমুদ মাদানী এ বিবৃতিতে বলেন, বিশ্বব্যাপি ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতি ভাইরাসের কারণে উদ্ভূত বর্তমান পরিস্থিতি থেকে দেশের উত্তরণের জন্য সকল পর্যায়ের মানুষের সম্মিলিত প্রচেষ্টা চালাতে হবে। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টা ব্যতিত এই যুদ্ধ জয় করা সম্ভব হবে না। জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ সবসময় দেশের ও দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করে গিয়েছে। দেশের এ দুর্যোগ মুহূর্তে দেশের মানুষের জন্য জমিয়তের এই কাজ তাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য।

তিনি আরও বলেন, দেশের এই পরিস্থিতিতে জমিয়ত তাদের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা বজায় রাখবে সার্বিক উত্তরণের আগ পর্যন্ত।

ত্রাণ তহবিল গঠনের কথা জানিয়ে মাহমুদ মাদানী বলেন, দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। নিম্ন আয়ের ও গরিব শ্রেণীর মানুষের জন্য এটা বড় কঠিন সময়। সারা দেশের এই লকডাউন চলাকালীন সময়ে তাদের পাশে থাকার স্বার্থে জমিয়ত তাদের সমস্তটা দিচ্ছে। কিন্তু তাদের সাধ্য সীমিত। তাই দেশের কল্যাণকামী ও ধনী শ্রেণীর সাহায্যে জমিয়ত একটি ত্রাণ তহবিল সংগঠনের ঘোষণা দিচ্ছে। যার মাধ্যমে দেশের সমস্ত অঞ্চলে বর্তমান পরিস্থিতিতে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেয়া হবে।

করোনা সংকটের বর্তমান পরিস্থিতিতে মুসলমান সকলের আকিদা-বিশ্বাস ঠিক রাখার আবেদন জানিয়ে মাহমুদ মাদানীর পক্ষ থেকে এ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এসময়ে দেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিধি-নিষেধাজ্ঞা সকলেই মেনে চলবেন। নিজেদের আমলের খামতি দূর করে বেশি বেশি তওবা এস্তেগফারের প্রতি মনোনিবেশ করবেন। ঘরদোর পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখবেন। পাশাপাশি নিজেদের আকিদা বিশ্বাস ঠিক রাখার স্বার্থে সর্বাবস্থায় মনে এই বিশ্বাস লালন করবেন যে আল্লাহ তায়ালার হুকুম ব্যতিরেকে এর সংক্রমণ কারও হওয়ার নয় এবং তাঁর সন্তুষ্টি ব্যতিরেকে এর নিরাময়ও হবে না।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে লেখা জমিয়ত উলামা হিন্দের জেনারেল সেক্রেটারী মাওলানা মাহমুদ আস’আদ মাদানীর চিঠিঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.