অধীর বিমানের ঘোষণা একুশের ভোটে আব্বাস সিদ্দিকীর সঙ্গে জোট করেই ভোটে লড়বে বাম কংগ্রেস

Spread the love

নিউজ ডেস্ক :-   যাবতীয় জল্পনার অবসান। একুশের নির্বাচনে বাম-কংগ্রেস জোটে শামিল হচ্ছে পিরজাদা আব্বাস সিদ্ধিকির ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টও। মঙ্গলবার আলিমুদ্দিনে জোটে বৈঠক শেষে একযোগে একথা ঘোষণা করলেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু এবং প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। বাম ও কংগ্রেস নেতৃত্বের দাবি, আসন্ন নির্বাচনে আসন সমঝোতা করেই লড়বে বাম কংগ্রেস এবং আইএসএফ।

বেশ কিছুদিন ধরেই রাজ্য রাজনীতিতে জল্পনা চলছিল, বাম-কংগ্রেসের তথাকথিত ধর্মনিরপেক্ষ জোটে শামিল হতে পারে ফুরফুরা শরিফের পিরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির দল ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট। এর আগে জোটে যোগ দিতে চেয়ে ফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসুকে নিজ উদ্যোগে চিঠিও লিখেছিলেন আব্বাস সিদ্দিকি। পরে ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের তরফে চিঠি লেখা হয়, প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীকেও। সব পক্ষের সদিচ্ছা থাকা সত্ত্বেও এই জোটের অন্যতম কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে আসন সমঝোতা। সূত্রের খবর, বাম-কংগ্রেস জোটের কাছে আব্বাস যে সংখ্যক আসন দাবি করেছেন, জোট নেতৃত্ব সেই পরিমাণ আসন কোনওভাবেই ছাড়তে রাজি নন। জটিলতা ছিল আব্বাসের দল যে যে আসন দাবি করেছেন তা নিয়েও। সূত্রের দাবি, ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট মুর্শিদাবাদ, মালদহ এবং উত্তর দিনাজপুরের বেশ কিছু আসনে লড়তে চেয়েছে। এই আসনগুলি আবার কংগ্রেসের গড় হিসেবে পরিচিত। কংগ্রেস এই আসনগুলি ছাড়তে রাজি নয়। এইসব জটিলতা কাটাতেই মঙ্গলবার সরস্বতী পুজোর দিন বৈঠকে বসে বাম-কংগ্রেস নেতৃত্ব। বৈঠকে বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু, প্রদেশ কংগ্রেস সভাপত অধীর চৌধুরী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বাম ও কংগ্রেসের একাধিক নেতা। ভারচুয়ালি উপস্থিত ছিলেন আব্বাস সিদ্দিকির ভাই ও দলের চেয়ারম্যান নৌসাদ সিদ্দিকিও।

বৈঠক শেষে আসনরফা নিয়ে এই জটিলতা অব্যাহত রেখেই বিমান বসু অধীর চৌধুরীরা ঘোষণা করে দিলেন, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের সঙ্গে আসন সমঝোতা করে লড়াই করবে বাম ও কংগ্রেস। অধীর দাবি করলেন, ইতিমধ্যেই বাম এবং কংগ্রেস নিজেদের মধ্যে আসন রফা সেরে ফেলেছে। তবে, তা এখন ঘোষণা করা হচ্ছে না। কারণ, এই আসন রফা নিয়ে আলোচনা চলাকালীন আইএসএফ, এনসিপি, আরজেডির মতো ধর্মনিরপেক্ষ শক্তিগুলি জোটের উপর আস্থা দেখিয়েছেন। তাই এই ছোট দলগুলি যাতে সম্মান পায়, তা নিশ্চিত করতেই আগেভাগে নিজেদের ভাগের আসনের সংখ্যা ঘোষণা করতে চাইছে না জোট নেতারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.