অক্সফোর্ড ইউনিয়নে বক্তৃতা দেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ পেলেন মমতা ব্যার্নাজী

Spread the love

নিউজ ডেস্ক:-    মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুকুটে নয়া পালক জুড়তে চলেছে। তিনি ফের লন্ডনের অক্সফোর্ড ইউনিয়েনের থেকে বক্তৃতা দেওয়ার আমন্ত্রণ পেয়েছেন। তবে করোনা আবহে এবারের এই সভা হতে হলেছে ভার্চুয়াল। আমন্ত্রণ পত্র পৌঁছনোর পর মুখ্যমন্ত্রী এই সভায় অংশ নেবেন বলেও জানিয়ে দিয়েছেন বলে সূত্রের খবর।

সবুজসাথী এবং উৎকর্ষ বাংলার জন্য রাষ্ট্রসংঘে সম্মানিত হয়েছে বাংলা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) মুকুটে জুড়েছে নয়া পালক। ২০১৭-র পর আরও একবার সুদূর লন্ডনের অক্সফোর্ড ইউনিয়ন থেকে বক্তৃতা দেওয়ার ডাক পেলেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান। সূত্রের খবর, ভারচুয়াল ওই বক্তৃতা সভায় যোগ দেওয়ার জন্য ইতিমধ্যেই তাঁর কাছে চিঠি পৌঁছে গিয়েছে। ওই বক্তৃতায় অংশ নেবেন বলেই ইচ্ছাপ্রকাশও করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

এর আগেও ২০১০ সালে রেলমন্ত্রী থাকার সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কেম্ব্রিজে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। তবে সেই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারেননি তিনি।

বিশ্বের সেরা ডিবেটিং সোসাইটি অক্সফোর্ড ইউনিয়ন। সেখান থেকেই এবার ডাক পেলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। করোনা (Coronavirus) সংকটের জেরে ভারচুয়াল ওই বক্তৃতা সভার আয়োজন করা হয়েছে। অক্সফোর্ড ইউনিয়নের তরফে ওই বক্তৃতা সভায় যোগ দেওয়ার জন্য চিঠি পাঠানো হয় মুখ্যমন্ত্রীকে। চিঠির দ্বারাই আমন্ত্রণ জানানো হয় তাঁকে। জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যে সেই চিঠি হাতেও পেয়ে গিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

 

লন্ডনের অক্সফোর্ড ইউনিয়নের থেকে বক্তৃতা দেওয়ার আমন্ত্রণ পেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। করোনা আবহের জেরে সেই সভা হবে ভার্চুয়াল। ইতিমধ্যেই চিঠি পাঠিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী সেই সভায় যোগ দেবেন বলে জানিয়েও দিয়েছেন।

বিশ্বের অন্যতম সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিতর্ক সভা। সেখানেই মুখ্যমন্ত্রী তুলে ধরবেন বাংলার উন্নয়নকে। রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রীর চালু করা বিভিন্ন প্রকল্প রয়েছে। যেগুলির মধ্যে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে, কন্যাশ্রী, সবুজশ্রী, সজুবসাথী, খাদ্যসাথী, যুবশ্রী, আমার বাড়ি, সেফ ড্রাইভ সেফ লাইফ, জলস্বপ্ন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.