মব লিঞ্চিং বিষয়ক আলোচনা সভায় একাধিক সংগঠনের,১২ জুলাই মহামিছিলের ডাক

Spread the love

মব লিঞ্চিং বিষয়ক আলোচনা সভা একাধিক সংগঠনের,১২ জুলাই মহামিছিলের ডাক

ইয়াজুল মোল্লা, অয়ন বাংলা, বারাসাত:
বারাসাত ওয়াকফ পরিষেবা কেন্দ্রে সিরাত সোস্যাল ওয়েলফেয়ার অ্যান্ড এডুকেশনাল ট্রাষ্টের রাজ্য সম্পাদক, শিক্ষক আবু সিদ্দিক খান ও রিয়াজুল ইসলাম (রাজু) এর আহবানে একাধিক সংগঠনের দায়িত্বশীলদের নিয়ে গেরুয়া তান্ডবসহ মব লিঞ্চিং বিষয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভাতে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষক মাওলানা আমিনুল আম্বিয়া, সুচিন্তিত মতামত প্রদান করেন আরাফের কর্ণধর পীরজাদা খোবায়েব আমিনী, প্রগ্রেসিভ ইয়ুথ ফাউন্ডেশনের রাজ্য সভাপতি সিয়ামত আলি, সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশনের জেলা সম্পাদক সহিদুল ইসলাম, দিশা সংগঠনের রাজ্য নেতৃত্ব ড.ফজলুর রহমান।, জমিয়ত উলামা হিন্দের বারাসাত ব্লক সম্পাদক হাসান আলি খান, মোঃ নাসিরুদ্দিন, উত্তর ২৪ পরগনা জেলা ইমাম কো – অর্ডিনেটর পীরজাদা হাসানুজ্জামান, সিরাতের রাজ্য সভাপতি সেখ আবু তালেব, আব্দুল আজিজ আনসারী, বেলিয়াঘাটা প্রগ্রেসিভ ইসলামী অ্যাসোসিয়েশন সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম, হিউম্যান রাইটস রাজ্য কমিটির সদস্য সাজিদ হোসেন, মোহঃ গোলাম মোস্তফা, ওয়াকফ পরিষেবা কেন্দ্রের মুতায়াল্লী প্রবীণ শিক্ষক রওশন আলি, এম.এইচ টি.ভি মাহাবুবুর রহমান, আল হিকমা উন্নয়ন কমিটির সম্পাদক মোজাফফার রহমান, সমাজসেবী ইসমাঈল আলি, এছাড়া বিভিন্ন মসজিদের ইমাম, মোয়াজ্জেমরা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভায় সিদ্ধান্ত হয়, শান্তিকামী নাগরিক সমাজের উদ্যোগে আগামী ১২ জুলাই শুক্রবার, বেলা ২ টায় জগদীঘাটা কাজিপাড়া জামে মসজিদ প্রাঙ্গণ থেকে প্লাকার্ড, ব্যানার নিয়ে বারাসাত শহরে মব লিঞ্চিং এর প্রতিবাদে শান্তি ও সম্প্রীতির লক্ষ্যে মৌন মিছিল করা হবে ইনশাআল্লাহ। ঐ মিছিলে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকল সম্প্রদায়ের মানুষ পা মেলাবেন।
মিছিলে নেতৃত্ব দেবেন উক্ত সংগঠনগুলির দায়িত্বশীল ,
ব্যাক্তিরা। এছাড়াও বি.ডি.ও, এস.ডি.ও, এস.পিকে দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য স্মারকলিপি দেওয়া হবে যাতে নির্মম মৃত্যুর পুনারাবৃত্তি না ঘটে। শান্তি, শৃংখলা বোঝায় থাকে। মিছিলের পর নৃতত্ত্বরা পরবর্তী কর্মসূচী কি হবে সেটা জানিয়ে দেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.