প্রয়াত নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর পরিবারের সদস্যা তথা সমাজসেবী কৃষ্ণা বসু

Spread the love

গৌতম ব্রহ্ম: প্রয়াত নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর পরিবারের সদস্য তথা তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন সাংসদ কৃষ্ণা বসু। শনিবার সকাল ১০.২০ নাগাদ কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। 

পরিবার সূত্রে খবর, চার বছর আগে স্ট্রোক হয়েছিল কৃষ্ণা বসুর। সেবার সেরে উঠলেও শারীরিক অবস্থা তেমন ভাল যাচ্ছিল না। বিগত চার-পাঁচদিন ধরে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন তিনি। তারপরই তাঁকে কলকাতার বাইপাস সংলগ্ন একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয়। গতকাল সন্ধে থেকেই তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয় এবং সকাল  ১০.২০ নাগাদ প্রয়াত হন তিনি। শেষকালে তাঁর সঙ্গে হাসপাতালে ছিলেন দুই পুত্র সুগত বসু ও সুমন্ত বসু। কিছুক্ষণের মধ্যেই তাঁর দেহ বাড়িতে নিয়ে আসা হবে। সেখান থেকে মরদেহ যাবে নেতাজি ভবনে। তারপর আজই কেওড়াতলা মহাশ্মশানে কৃষ্ণা বসুর শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হবে।     

১৯৩০ সালে বর্তমান বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা শহরে জন্মগ্রহণ করেন কৃষ্ণা বসু।কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরাজিতে এমএ পাশ করেন তিনি। ১৯৫৫ সালে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর দাদা শরৎচন্দ্র বসুর পুত্র শিশির চন্দ্র বসুর সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। রাজনৈতিক জীবনে যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে সাংসদ পদে ছিলেন কৃষ্ণা বসু। একাধারে সমাজসেবী, শিক্ষাবিদ ও  রাজনীতিবিদ ছিলেন তিনি। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর দাদা শরৎচন্দ্র বসুর পুত্র শিশির কুমার বসুর স্ত্রী কৃষ্ণা বসু বহুদিন কলকাতার সিটি কলেজে অধ্যাপনা করেছেন।    

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.