২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচনে চারশোর বেশি আসন পাবে বিরোধীরা, মত প্রশান্ত কিশোরের

Spread the love

বুলবুল চৌধুরী : ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনে পশ্চিমবাংলায় অভূতপূর্ব সাফল্য পাওয়ার পর এবার প্রশান্ত কিশোর নজর দিয়েছেন ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচনে নির্বাচনের দিকে। তিনি এই লক্ষ্যে ইতিমধ্যেই দেশের বিরোধী দলের নেতাদের সঙ্গে আলাদা আলাদা করে বৈঠক করছেন।

কয়েকদিন আগেই তিনি দাবি করেছিলেন, ২০২৪ সালে ভারতীয় রাজনীতির শীর্ষে উঠে আসবেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। এরপর কয়েকদিন আগেই তিনি দেখা করেছেন মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এনসিপি নেতা শারদ পাওয়ারের সঙ্গে। শারদ পাওয়ার ও প্রশান্ত কিশোরের বৈঠকে কি সিদ্ধান্ত হয়েছে তা প্রকাশ্যে জানা না গেলেও কয়েকটি জাতীয় সংবাদ মাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে প্রশান্ত কিশোর শারদ পাওয়ারের কাছে দাবি করেছেন আগামী লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি ক্ষমতায় আসতে পারবে না।

তিনি বলেছেন, আঞ্চলিক দলগুলো যদি জোটবদ্ধ হয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই করে এবং কংগ্রেস দল এবং ইউপিএ জোট সম্মিলিত শক্তি নিয়ে লড়াই করে বিজেপির বিরুদ্ধে তাহলে ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচনে চারশোর বেশি আসন পাবে বিরোধীরা। তিনি শারদ পাওয়ারকে নাকি প্রস্তাব দিয়েছেন এক্ষুনি দেশের সব বিরোধী দলের মুখ্যমন্ত্রীদের ঐক্যবদ্ধভাবে মোদি বিরোধী আন্দোলনে যুক্ত হওয়া উচিত।

শারদ পাওয়ারের সঙ্গে প্রশান্ত কিশোরের বৈঠক নিয়ে দেশজুড়ে চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। তাহলে কি এবার প্রশান্ত কিশোরী বিরোধী দলগুলোর মধ্যে সেতুবন্ধন এর কাজ করছেন। ইতিমধ্যে প্রশান্ত কিশোর পাঞ্জাব নির্বাচনের দায়িত্ব পেয়েছেন কংগ্রেসের পক্ষ থেকে। কংগ্রেস থাকে গুজরাট নির্বাচনের দায়িত্ব দিয়েছে বলে শোনা যাচ্ছে। ২০২২ এ দেশের পাঁচটি রাজ্যে নির্বাচন হবে এই পাঁচটি রাজ্যের নির্বাচনের ফলের উপরেই নির্ভর করবে ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচনে দিল্লির মসনদেকে বসবে।

এমনিতেই উত্তরপ্রদেশের যোগী মোদির লড়াই সামনে চলে আসায় সেখানকার পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগে রয়েছে বিজেপি এবং আরএসএস। বিশেষ করে আরএসএস সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না তারা যোগীকে সমর্থন করবে, না মোদিকে। কারণ মোদি উত্তরপ্রদেশের তার অনুগামী কে মুখ্যমন্ত্রী করতে চান। অন্যদিকে যোগী আদিত্যনাথ আরএসএসের মতাদর্শ কার্যকরী করলেও শাসনের ক্ষেত্রে বারবার ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন। যোগী আদিত্যনাথ কে সামনে রেখে উত্তরপ্রদেশে বিজেপি লড়াই করলে ফল খারাপ হতে পারে বলে আরএসএস মনে করছে। একই সঙ্গে তারা এও মনে করছে যে যোগীর সঙ্গে মোদির খুব বেশি তফাৎ নেই মোদীও দিল্লি সামলাতে পারছে না।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.