রাষ্ট্রপতি রামনাথকোবিন্দ নিজের গ্রামে এসে বললেন ৫ লক্ষ বেতনের ৩ লক্ষ টাকাই ট্যাক্সে চলে যায়, এর থেকে শিক্ষকের বেতন বেশি হয়

Spread the love

 

 

৫ লক্ষ বেতনের ৩ লক্ষ টাকাই ট্যাক্সে চলে যায়, এর থেকে শিক্ষকের বেতন বেশি হয়: রাষ্ট্রপতি রামনাথকোবিন্দ

 

নিউজ ডেস্ক: ‘৫ লক্ষ বেতনের প্রায় ৩ লক্ষ টাকা ট্যাক্সে চলে যায়, এর থেকে শিক্ষকের বেতন বেশি হয়’, এমনই মন্তব্য করলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। রাষ্ট্রপতি পদে শপথ নেওয়ার পর এই প্রথমবার নিজের জন্মভিটেতে ঘুরতে গেলেন রাষ্ট্রপতি। গ্রামের মাটিতে পা রেখেই এই মন্তব্য করেন তিনি।

প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এপিজে আব্দুল কালামের পর, এই প্রথমবার কোনও রাষ্ট্রপতি ট্রেনে সফর করলেন। রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘আপনাদের সকলের আশির্বাদ নিতে আমি এখানে এসেছি। এই রেল স্টেশনের সঙ্গে জড়িত প্রতিটি কথা আমার মনে আছে। অনেকেই বলেন যে, আমি যখন এমপি ছিলাম, তখন এই ষ্টেশনে ট্রেন থামত। কিন্তু এখন আর থামে না। সম্ভব এটা করোনা আবহের কারণেও হতে পারে। তবে আসতে আসতে সব ঠিক হয়ে যাবে। আমি কিন্তু আপনাদের থেকে কখনই দূরে নেই। কিছু প্রোটকলের কারণে আমাকে আপনাদের থেকে দূরে থাকতে হয়। তবে আপনারা সর্বদাই আপনাদের সমস্ত অভিযোগ, দাবি আমাকে জানাতে পারেন। স্বাধীনতার পর থেকে দেশে অনেক উন্নতি হয়েছে, ভবিষ্যতে আরও হবে।’

এরপর কথা প্রসঙ্গে রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘দেশের রাষ্ট্রপতিই সর্বাধিক বেতন পেয়ে থাকনে। যার কারণে আমিও ৫ লক্ষ টাকা বেতন পাই। যার থেকে কর হিসেবেই চলে যায় ৩ লক্ষ টাকা। তাহলে বলুন আর কতোটা বাকি থাকে? তবে যতোটা বাকি থাকে, তার থেকে তো আমাদের আধিকারিকরা এবং অন্যান্য লোকেরা বেশি বেতন পেয়ে থাকেন। এখন একজন শিক্ষকও এর থেকে বেশি বেতন পেয়ে থাকেন।’

একই সঙ্গে রাষ্ট্রপতি করোনার মহামারী নিয়ে সতর্কবার্তাও দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, যাঁরা এই মহামারীতে আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন, আমি তাদের সকলকে শ্রদ্ধা জানাই। এর সাথে তিনি করোনার তৃতীয় তরঙ্গকে সামনে রেখে করোনার বিষয়ে সাবধানতা অবলম্বন করতে এবং বাচ্চাদের আরও যত্ন নিতে বলেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.