মন্দির, মসজিদ, গির্জা খুলবে রাজ্যে ১ জুন থেকে জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যার্নাজী

Spread the love

নিউজ ডেস্ক, কলকাতা:- সোমবার থেকে পশ্চিমবঙ্গে সমস্ত মন্দির, মসজিদ, গির্জা, গুরুদ্বারা খোলার অনুমতি দিল রাজ্য সরকার। এদিন বিকেলে নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করে ঘোষণা করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে বেশকিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে সরকারের তরফে।

এদিন তিনি বলেন, সব খুললেও একসাথে দশজনের বেশি প্রবেশ করা যাবে না। ভেতরে কোন বড় অনুষ্ঠান হবে না। লকডাউন এর নিয়ম অনুযায়ী পনেরোজন একসঙ্গে এক জায়গায় জড়ো হবে না। এই সমস্ত জায়গায় স্যানিটাইজের ব্যবস্থা রাখতে হবে। এই দায়িত্ব নিতে হবে এই ধর্মীয় সংস্থাগুলিকেই। দরকার হলে এই কমিটি গুলিকে এর দায়িত্ব নিতে হবে

একইসঙ্গে বেসরকারি বাসে যত আসন, ততজন যাত্রী তোলা যাবে বলে জানিয়ে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।তবে বাসে দাঁড়িয়ে যেতে পারবেন না কোনও যাত্রী।অল্প যাত্রী নিয়ে বেসরকারি বাস চলাচলের ফলে বিপুল ক্ষতি হচ্ছে, তাই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। আগে মাত্র ২০ জন যাত্রী নিয়ে বাস চালানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। বাসে স্যানিটাইজেশনে জোর দেওয়া হবে। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, “বাসের আসনে বসতে গেলে স্যানিটাইজ করে নেওয়া দরকার। যাত্রীদের মুখে মাস্ক ও হাতে গ্লাভস থাকা বাধ্যতামূলক।” একইসঙ্গে তাঁর আবেদন, বাসের কনডাক্টরের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করবেন না।

১ জুন থেকে খুলছে পাটকল ও চা শিল্পও। সেখানে হাজির থাকতে পারবেন ১০০ শতাংশ কর্মী। ৮ জুন থেকে ১০০ শতাংশ কর্মীকে নিয়ে বেসরকারি, সরকারি অফিস খুলতে পারবে।  তবে এ কদিন স্যানিটাইজ করে নেওয়া দরকার বলে মত প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায়, “কাজ করার মাঝেই হাত স্যানিটাইজ করতে হবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.