এবার শিশির অধিকারী কে জেলা সভাপতির পদ থেকে সরাল তৃণমূল

Spread the love

নিউজ ডেস্ক : –  এবার শিশির অধিকারী কে তৃণমূল জেলা সভাপতির পদ থেকে সরাল ।  পূর্ব মেদিনীপুরের রাজনীতিতে অধিকারীদের দাপট কমাল তৃণমূল। ছেলে শুভেন্দু অধিকারী বিজেপি যোগ দিয়েছে। বাবা শিশির অধিকারীকে তাই আগেই দিঘা–শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান পদ  থেকে সরিয়েছে শাসক দল। এর আগে কাঁথি পুরসভার প্রশাসক পদ থেকে সরানো হয়েছিল শিশির–পুত্র সৌমেন্দু অধিকারীকেও। তার পরই সৌমেন্দু বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। আর এবার শিশির অধিকারীকে সরানো হল জেলা সভাপতির পদ থেকেও।

একের পর এক পদ থেকে সরানো হল শিশির অধিকারীকে। তা হলে কি এবার তিনিও গেরুয়া শিবিরের দিকে পা বাড়াবেন! জল্পনা আরও তীব্র হচ্ছে। উল্লেখ্য, ডিসেম্বরে ভরা সভা থেকে শুভেন্দু দাবি করেছিলেন, তাঁর ঘরেও পদ্ম ফুটবে। তিনি এমন দাবি করার পরদিনই বিজেপিতে যোগ দেন তাঁর ভাই সৌমেন্দু। গতকাল মুকুল রায়ও ইঙ্গিতপূর্ণ বক্তব্য রেখেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, শিশির অধিকারীর বিজেপিতে আসা সময়ের অপেক্ষা। কারণ শিশির অধিকারীর দুই ছেলে ইতিমধ্য়ে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছেন।

দিঘা–শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদের নতুন চেয়ারম্যান করা হয়েছিল অখিল গিরিকে। তাঁর ছেলে সুপ্রকাশ গিরিকে কাঁথি পুর প্রশাসক বোর্ডে সদস্য করা হয়েছে। এবার শুভেন্দু বিরোধী বলে পরিচিত সৌমেন মহাপাত্রকে জেলা সভাপতি করা হল। যদিও তৃণমূল শিবির বারবারই শিশির অধিকারীর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জল্পনা উড়িয়ে দিয়েছে। পুর ও নগরোন্নয়মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম থেকে শুরু করে তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বারবার দাবি করেছেন, শিশির অধিকারীর বয়স হয়েছে। তাই তিনি একাধিক দায়িত্ব থেকে অব্যহতি চেয়েছেন।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.