বেনজির আক্রমন শুভেন্দু কে ডায়মন্ড হারবারের সভা থেকে অভিষেক ব্যানার্জীর

Spread the love

নিউজ ডেস্ক :-  ডায়মন্ড হারবারের সভা থেকে বিরোধীদের জবাব দেবেন তা স্পষ্টই ছিল। রবিবার দুপুরে যেন তাই সত্যি হল। জনসভার মঞ্চ থেকে একের পর এক বক্তৃতা তুলে ধরে বর্তমান বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে বেনজির আক্রমণ করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় !

গোটা বাংলা জুড়ে এখন চলছে আগামী একুশের ভোটের দামামা ।দলবদলে বাংলার রাজনীতি সরগরম ,এ রকম এক পরিস্থিতিতে শুভেন্দু বিজেপিতে যাওয়াতে উতপ্ত বাংলার রাজনীতি । আজ আবার ডায়মন্ড হারবার থেকে হূঙ্কার দিলেন অভিষেক ব্যানার্জী ।

ডায়মন্ড হারবারের সভা থেকে বিরোধীদের জবাব দেবেন তা স্পষ্টই ছিল। রবিবার দুপুরে যেন তাই সত্যি হল। জনসভার মঞ্চ থেকে একের পর এক বক্তৃতা তুলে ধরে বর্তমান বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে বেনজির আক্রমণ করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ।

বিধানসভা নির্বাচনের  আগে বারবার পশ্চিমবঙ্গকে সোনার বাংলা হিসাবে গড়ে তোলার কথা শোনা যাচ্ছে বিজেপি নেতামন্ত্রীদের মুখে। হেস্টিংসে বিজেপি কার্যালয়ে শনিবারই শুভেন্দু অধিকারীও  দাবি করেছেন, সোনার বাংলা গড়ে তোলার জন্য বাংলাকে মোদির  হাতে তুলে দিতে হবে। ডায়মন্ড হারবারের সভা থেকে তারই পালটা দিলেন অভিষেক। তিনি বলেন, “বাংলার মানসম্মান, কৃষ্টিকে বিক্রি করে দিয়ে যারা বাংলাকে মোদির হাতে তুলে দেওয়ার কথা বলছে। বাংলা কী কোনও বস্তু যে যার তার হাত তুলে দিতে হবে?” শুভেন্দুর দিকে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে অভিষেকের হুঁশিয়ারি, “এক বাপের ব্যাটা হলে ডায়মন্ড হারবারটা তুলে দেখাক।”

এছাড়াও শুভেন্দুকে ‘উপসর্গহীন বেইমান’ বলেও কটাক্ষ করেন ডায়মন্ড হারবারের  তৃণমূল সাংসদ। গত ২১ বছর ধরে তৃণমূলের হয়ে কাজ করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। ছিলেন মন্ত্রী, বিধায়ক। ঘাসফুল শিবিরেও বেশ গুরুত্বপূর্ণ পদের অধিকারী ছিলেন। তবে ২১ বছর তৃণমূলে থাকার জন্য ‘লজ্জিত’ বলে শনিবারই দাবি করেন শুভেন্দু। অধিকারী পরিবারের সন্তান দলবদল করেছেন। কিন্তু শুভেন্দুর বাবা এবং ভাই এখনও তৃণমূলের সঙ্গে যুক্ত। সেই প্রসঙ্গ টেনেও ‘লজ্জিত’ ইস্যুতে শুভেন্দুকে বিঁধলেন অভিষেক। তাঁর দাবি, “বাবা, ভাইয়ের সঙ্গে তো এখনও এক বাড়িতেই থাকেন। লজ্জা করে না?” ‘তোলাবাজ ভাইপো’ বলেও বারবার অভিষেককে খোঁচা দিয়েছেন শুভেন্দু। তারও পালটা জবাব দিলেন তিনি। তৃণমূল সাংসদের কথায়, ‘‘নারদায় টাকা নিয়েছিলে তুমি। তোলাবাজ তো তুমি।’’

 

শুভেন্দু অধিকারীর পাশাপাশি এদিনের সভামঞ্চ থেকে জেপি নাড্ডা , দিলীপ ঘোষ সহ বিজেপির একাধিক নেতামন্ত্রীর বিরুদ্ধে জোরাল আক্রমণ শানান অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিকে, রবিবারই দাঁতনে রোড শো’র পর একটি সভা করার কথা শুভেন্দু অধিকারীর। সেই মঞ্চ থেকে শুভেন্দু পালটা অভিষেককে কোনও বার্তা দেন কিনা, সেদিকেই নজর রাজনৈতিক মহলের।

এ দিকে বহরমপুরে ছাত্র যুব তৃণমূলের পক্ষ থেকে শুভেন্দু অনুগামী লেখা ব্যানার ফেস্টুন গুলি খুলে পুড়িয়ে ফেলা হল।
এক কথায় একুশে নির্বাচন ঘিরে বঙ্গ রাজনীতির ময়দান উতপ্ত ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.