খোদ নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের ,কিন্তু কেন?

Spread the love

  ওয়েব ডেস্ক :- নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে এফ আই আর ,দিদি কে ব্যাঙ্গাত্মক ভাবে ঢেকে তিনি অপমান করে চলেছেন এই কারণে এফ আই আর বলে জানা যাচ্ছে ।  তিনি দেশের প্রধানমন্ত্রী। আর তার বিরুদ্ধেই কি না এফআইআর দায়ের হল। কিন্তু কেন হলো জানেন? তাহলে শুনুন আসল কারণ। ভোটমুখী বাংলায় প্রায়ই প্রচারে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আর ভোটবঙ্গে প্রচারে এসে সভামঞ্চ থেকে মমতা ব্যানার্জিকে কটাক্ষ করতে তিনি যে শব্দটি ব্যবহার করছেন তা হল ‘‌দিদি আরে ও দিদি’‌। আর এই মন্তব্যটির জেরেই বিপাকে পড়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর এই মন্তব্য নিয়েই গর্জে উঠলেন শহরের মেয়েরা। তাঁদের দাবি প্রধানমন্ত্রীর করা এই মন্তব্যের জন্যই প্রতিনিয়ত মেয়েদের দেখে কটূক্তি করছে অনেকেই। যেভাবে বিজেপির প্রতিটি জনসভা থেকে নরেন্দ্র মোদি তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জিকে লক্ষ্য করে ব্যঙ্গ করছেন। এর বিহিত চেয়েই আমহার্স্ট স্ট্রিট থানায় মোদির নামে এফআইআর দায়ের করা হয় বেঙ্গল সিটিজেন ফোরামের তরফে। আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হোক প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে। আমহার্স্ট স্ট্রিট থানার সামনে বিক্ষোভে সামিল হয় বেঙ্গল সিটিজেন ফোরামের সদস্যরা। প্রধানমন্ত্রীর কুশপুতুলও পোড়ানো হয়। বেঙ্গল সিটিজেন ফোরামের সদস্য এক তরুণীর কথায়, প্রধানমন্ত্রীর অবিলম্বে এই মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাওয়া উচিত। প্রতিটা জনসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে ব্যঙ্গ করছেন, হেনস্থা করতে চাইছেন এর জন্য আমরা নরেন্দ্র মোদির শাস্তি চাই। প্রধানমন্ত্রী বাংলার প্রতিটা মেয়েকে অসম্মান করছেন। আমরা নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনেও নালিশ জানাতে বাধ্য হব।যদিও এই ঘটনা প্রসঙ্গে বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, কে বা কারা এইসব বিক্ষোভ করল তাতে কিছু যায় আসে না। বাংলার মানুষ নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে রয়েছেন। বাংলায় বিজেপি ক্ষমতায় আসবে। সোনার বাংলা তৈরি করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.