BIG BREAKING: বড় ঘোষণা, বিতর্কিত ৩ কৃষি আইন প্রত্যাহারের ঘোষণা মোদী সরকারের

Spread the love

BREAKING: গুরুনানকের জন্মদিনে বড় ঘোষণা, বিতর্কিত ৩ কৃষি আইন প্রত্যাহার করল মোদী সরকার

ওয়েব ডেস্ক.দিল্লী :-;    বড় ঘোষণা  তিনটি বিতর্কিত কৃষি আইন প্রত্যাহারের কথা ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। এই তিনটি আইন দেশ জুড়ে ব্যাপক কৃষক বিক্ষোভের সৃষ্টি করে। আগামি বছর বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন রয়েছে। তাঁর আগে এই ঘোষণা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে। গুরু নানকের জন্মদিনে বড়সড় ঘোষণা করে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। বিতর্কিত তিন কৃষি আইন প্রত্যাহার করল কেন্দ্র। আর তাতে যে সাফল্য পেল কৃষকদের দীর্ঘদিনের আন্দোলন তা বলাই বাহুল্য। আইন প্রত্যাহারের পরই আন্দোলনরত কৃষকদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধ, এবার আপনারা বাড়ি ফিরে যান।
প্রসঙ্গত এই ৩ কৃষি বিলকে নিয়ে কৃষক আন্দোলনে উত্তাল হয়েছিল দেশ। বিরোধীরাও বারবার এই ইস্যুতে নিশানা করছিল মোদী সরকারকে। তবে কৃষকদের চাপের মুখে এবার সেই বিলই প্রত্যাহার করে নিল কেন্দ্র সরকার।
রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচনের আগে এটা বড় মাস্টারস্ট্রোক মোদী সরকারের। পেট্রোল ডিজেলের দাম কমানোর পর এবার কৃষি বিল প্রত্যাহার। মোদী সরকারের এই স্ট্র্যাটেজিতে বিরোধীদের চাপ বাড়তে পারেই বলে মনে করছেন তারা। যার ফলে ২০২৪ এর আগে মোদী সরকারের বিরুদ্ধে বড় ইস্যু খুঁজতে রীতিমত বেগ পেতে হতে পারে বিরোধীদের।
এদিন জাতির উদ্দেশে ভাষণ রাখতে গিয়ে তিনি প্রথমেই বলেন, আজ গুরুনানকের জন্মবার্ষিকী। আমরা বরাবরই কৃষকদের সুবিধার কথা ভেবেই কাজ করেছি। কৃষকদের মঙ্গল কামনা করেই কৃষি আইন আনা হয়েছিল। কিন্তু বহু চেষ্টা করেও কিছু সংখ্যক কৃষককে আমরা বোঝাতে পারিনি। তাই আমরা এই তিন আইন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এছাড়াও তিনি বলেন, ‘কৃষক কল্যাণে অঙ্গীকারবদ্ধ আমাদের সরকার। ফসল বীমা যোজনার অধীনে বিগত চার বছরে ১ লক্ষ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ পেয়েছে কৃষকরা। বীমা ও পেনশনের সুবিধাও আনা হয়েছে। সরাসরি কৃষকদের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানো হয়েছে। এমএসপিও বাড়ানো হয়েছে, ই-নাম যোজনার অধীনে মাণ্ডিগুলিকে এনে কৃষকদের দেশের যেকোনও প্রান্তে ফসল বিক্রি করার সুবিধা দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে কেন্দ্র সরকারের কৃষি বাজেট আগের সরকাারের তুলনায় পাঁচগুণ বাড়ানো হয়েছে।’

সৌজন্য :- প্রথম কলকাতা

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.