ভোটের মুখে আবার বড় ধাক্কা মালদা জেলা বিজেপিতে জেলাপরিষদের বিজেপি সদস্যার যোগদান তৃণমূলে

Spread the love
  • নিউজ ডেস্ক :-বেশ কয়েকদিন আগে মালদা জেলা পরিষদের বেশ কয়েকজন সদস্য বিজেপিতে যোগদান করেন কিন্তু কয়েক দিন যেতে না যেতেই বিজেপিতে যোগদান কারী সদস্য আবার তৃণমূলে আসেন । আবার এদিকে বিজেপি থেকে নির্বাচিত সদস্য তৃণমূলে যোগদান করলেন ।

ভোটের মুখে আরও একবার বড় ধাক্কা খেলো মালদা জেলা বিজেপির সংগঠন। মালদা জেলা পরিষদের নির্বাচিত বিজেপি সদস্য সাগরিকা সরকার তৃণমূলে যোগদান করলেন। বুধবার দুপুরে মালদা শহরের স্টেশন রোড সংলগ্ন তৃণমূলের জেলা কার্যালয় নূর ম্যানশন ভবনে যোগদান কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বিজেপি নেত্রী সাগরিকা সরকারের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি তথা রাজ্যসভার সাংসদ মৌসুম নূর।

এদিন তৃণমূলে যোগ দিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে একরাশ ক্ষোভ উগরে দেয় তৃণমূলে যোগ দেওয়া মালদা জেলা পরিষদের সদস্য সাগরিকা সরকার। তিনি বলেন, “বিজেপির জেলার একাংশ শীর্ষ নেতৃত্বের কোন নীতি আদর্শ নেই। জেলা নেতাদের একাংশ নিজের মর্জি মত প্রার্থী বাছাই করেছে। এমনকি অর্থের বিনিময় প্রার্থী বাছাই হয়েছে। আর এব্যাপারে যখন প্রতিবাদ করেছিলাম, তখন দল অবাঞ্চিত পদক্ষেপ নিয়েছে। তাই দলের প্রতি অসন্তুষ্ট হয়ে মুখ্যমন্ত্রীর আদর্শকে মেনে নিয়ে তৃণমূলে যোগদান করেছি। আগামী বিধানসভা নির্বাচনে দলের বিভিন্ন এলাকার প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচার করব।”

তৃণমূলের জেলা সভাপতি তথা সাংসদ মৌসুম নূর বলেন, “সাগরিকা সরকার তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন তাকে আমরা স্বাগত জানিয়েছি। গাজোল বিধানসভা নির্বাচনে দলের প্রার্থীর হয়ে উনি প্রচার করবেন।”

মঙ্গলবার জেলা বিজেপি নেতৃত্ব সাগরিকা সরকারকে দল থেকে সাসপেন্ড করে। এর পরেই সাগরিকা সরকার তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করার ইচ্ছে প্রকাশ করেন। বুধবার দুপুরে তৃণমূলের জেলা সদর কার্যালয়ে মৌসম নুরের হাত থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের পতাকা তুলে নিয়ে সাগরিকা সরকার বলেন, “গাজোলে তৃণমূল কংগ্রেসকে জেতাতে তিনি সর্বশক্তি দিয়ে লড়াই করবেন।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.