প্রার্থী বদলের দাবীতে মুর্শিদাবাদের কান্দিতে বিজেপির টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ অফিসে পড়লো তালা

Spread the love

জৈদুল সেখ .অয়ন বাংলা .কান্দী :-   মুর্শিদাবাদ জেলার ৬৮ কান্দি বিধানসভা বিজেপি পার্টি অফিসের সামনে টায়ার জ্বালিয়ে কান্দি বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী গৌতম রায়ের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখান এমন কী ক্ষোভে বিজেপির অফিসে তালাও ঝুলিয়ে দেন বিজেপির পাঁচটি মন্ডল সভাপতি এবং বিজেপি নেতৃত্বরা। এই বিজেপি’র প্রার্থী বদল চেয়ে কান্দীতে আগুন জ্বালানো ঘটনাকে তৃণমূল এবং বামেরা কটাক্ষ করে বলছে ওদের জামানত এবার জব্দ হবে।

বৃহস্পতিবার কান্দীতে বিজেপি প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা হয় গৌতম রায়ের নাম। ২০১৯’এর উপনির্বাচনে এই কেন্দ্রেই তৃণমূল কংগ্রেসের হয় প্রার্থী হয়েছিলেন গৌতম রায় কিন্তু হেরে যাওয়ার পর থেকেই দূরত্ব বাড়তে থাকে তৃণমূলের সঙ্গে। যদিও দীর্ঘদিনের কান্দী পৌরসভার চেয়ারম্যান এবং গৌতমই ছিলেন অপূর্ব সরকারের পর সেকেন্ড ইন কমান্ড এলাকায় পরিচিত ছিল। ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে অপূর্ব সরকার তৃণমূল থেকে প্রার্থী হওয়ার পরই দল বদলে বিজেপি’তে যোগ দেন তিনি।

বিজেপির অফিসে তালা
সেই গৌতমকে প্রার্থী হিসেবে মানতে নারাজ কান্দীর বিজেপি নেতা কর্মীদের একাংশ।শুক্রবার ক্ষুব্ধ বিজেপি কর্মীরা কান্দী টাউন বিজেপি সভানেত্রী বিনীতা রায়ের বাড়ি ঘেরাও করে স্লোগান তুলে বিক্ষোভ দেখান । প্রার্থী বদলের দাবীতে জেলা নেতৃত্বের কাছে দরবারও করেছেন মণ্ডল সভাপতি, কার্যকর্তারা। কর্মীদের বিক্ষোভ প্রসঙ্গে বিজেপি প্রার্থী গৌতম রায় অবশ্য বলেন,
“সকলকে সাথে নিয়েই কাজ করবো। এই সমস্যা মিটে যাবে।”
শুক্রবার সকাল থেকেই কান্দীতে ছিল উত্তেজনা। দিনভর বিক্ষোভের পর সন্ধেয় দলের অফিসে তালা মেরে অফিসের সামনে আগুন জ্বালালেন বিজেপি কর্মীরা। পরে বিজেপির নেতৃত্ব আশ্বাসের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। বিজেপি কর্মীদের মূলত দাবি বা ক্ষোভ যে কয়েকদিন আগে তৃণমূল থেকে বিজেপিতে এসে কিভাবে টিকিট পেল গৌতম রায়। বিজেপি কর্মীরা প্রশ্ন তুলেছে যে হয়তো বিজেপি বিজেপি নেতৃত্বকে টাকা দিয়ে গৌতম রায় এই বিধানসভা নির্বাচনের টিকিট কিনেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.