সুপ্রিম কোর্টের মামলা নিয়ে অনাস্থা কপিল সিব্বলের বললেন ” স্পর্শকাতর মামলা যায় কয়েকজন নির্দিষ্ট বিচারপতির কাছে”

Spread the love

‘স্পর্শকাতর মামলা যায় কয়েকজন নির্দিষ্ট বিচারপতির কাছে’, ‘সুপ্রিম অনাস্থা’য় বিতর্কিত মন্তব্য সিব্বলের

 

নিউজ  ডেস্ক: সুপ্রিম কোর্টের উপরে আর আস্থা রাখা যাচ্ছে না, চাঞ্চল্যকর দাবি করলেন প্রবীণ সাংসদ এবং আইনজীবী কপিল সিব্বল । সেই সঙ্গে জানালেন, স্পর্শকাতর মামলাগুলি নির্দিষ্ট কিছু বিচারপতিদের কাছে পাঠানো হয়। ফলে আগে থেকেই জানা যায়, মামলার রায় কী হতে চলেছে। সাম্প্রতিক কালে সুপ্রিম কোর্টের  বেশ কয়েকটি রায়ের ভিত্তিতেই এমন ধারণা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাজ্যসভা সাংসদ। সেই সঙ্গে তাঁর মত, শীর্ষ আদালত নজিরবিহীন রায় দিলেও তা বাস্তবায়িত করা হয় না।

চলতি বছরেই আইনজীবী হিসাবে পঞ্চাশ বছর পূর্ণ করতে চলেছেন কপিল সিব্বল। সেই প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে তিনি জানিয়েছেন, “যদি কেউ মনে করেন সুপ্রিম কোর্টে এসে বিচার পাবেন, তাহলে খুব ভুল ভাবছেন। শীর্ষ আদালতে আইনজীবী হিসাবে পঞ্চাশ বছর কাটানোর পরে আমি এই কথা বলছি। আমার মনে হয় এই প্রতিষ্ঠান থেকে সঠিক বিচার আশা করা যাচ্ছে না। অনেকেই হয়তো মনে করছেন, সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে প্রগতিশীলভাবে বিচারের রায় দিচ্ছে শীর্ষ আদালত। কিন্তু সেই রায় বাস্তবায়িত হতে পারে না।”

তারপরেই ইডির ক্ষমতার পরিধি বাড়ানো নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়কে কটাক্ষ করেন তিনি। সিব্বল বলেন, “মানুষের গোপনীয়তা বজায় রাখার পক্ষে রায় দিয়েছে শীর্ষ আদালত। অন্যদিকে আদালতের রায়ের বলেই ইডি আধিকারিকরা বাড়িতে ঢুকে এসে তল্লাশি করছে। তাহলে গোপনীয়তা কোথায় গেল?” গুজরাট দাঙ্গার সমস্ত মামলা থেকে নরেন্দ্র মোদিকে অব্যাহতি দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। সেই রায়েরও তীব্র সমালোচনা করেছেন সিব্বল।

তারপরেই বিস্ফোরক মন্তব্য করে সিব্বল জানান, “যে মামলাগুলি খুব স্পর্শকাতর, নির্দিষ্ট কিছু বিচারপতির কাছেই সেগুলি পাঠানো হয়। তাই বিচারের আগেই আমরা জানতে পারি কী রায় আসতে চলেছে।” ভারতীয় বিচারব্যবস্থার স্বাধীনতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। তাঁর মতে, বিচারপতিদের নিয়োগ করার জন্য নানা বিষয়ের সঙ্গে আপস করতে হয়। সিব্বলের এহেন বিস্ফোরক মন্তব্য প্রকাশ্যে আসার পরেই তীব্র নিন্দা করেছে অল ইন্ডিয়া বার অ্যাসোসিয়েশন। ভারতের বিচারব্যবস্থার প্রতি অবজ্ঞাপূর্ণ মন্তব্য করেছেন সিব্বল, বলেছেন বার অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান আদিশ সি আগরওয়ালা।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.