অবশেষে জল্পনার অবসান মমতা ব্যানার্জির সভা মঞ্চে তৃণমূলে যোগ দিলেন প্রাক্তন আইপিএস হুমায়ুন কবির

Spread the love

 

নিউজ ডেস্ক :-   বিধানসভা ভোটের আগে তৃণমূলের শক্তিবৃদ্ধি। অবশেষে সমস্ত জল্পনা সত্যি করে শাসক শিবিরে যোগ দিলেন চন্দননগরের প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার হুমায়ুন কবীর ।মঙ্গলবার কালনার সভায় শাসক শিবিরে যোগ দিলেন তিনি। দিনকয়েক আগে ইস্তফা দিয়েছিলেন তিনি। এর আগে প্রাক্তন পুলিশ কমিশনারের স্ত্রীও যোগ দিয়েছিলেন তৃণমূলে।

কালনার জনসভায় তৃণমূলে যোগ দিলেন চন্দননগরের প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার হুমায়ুন কবির। এদিন সস্ত্রীক তাঁকে তৃণমূলের মঞ্চ দেখা যায়। মঞ্চে মমতা ব্যানার্জির উপস্থিতিতে তাঁর হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। দলে যোগ দেওয়ার পরেই তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভূয়সী প্রশংসা করেন।

তিনি বলেন, দশ বছর ধরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে উন্নয়নের জোয়ার আমরা দেখেছি। মানুষের সুখে সবচেয়ে বড় কথা দুঃখে তিনি ঝাপিয়ে পড়তেন, তা দেখেছি। তাঁর অনুপ্রেরণায় আমি অভিভূত। আজকে একটা বাইরের দল এসে বিভেদ সৃষ্টি করতে চাইছে। পশ্চিম বাংলার মানুষ তাদের উত্তর দেবে। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী আবার ক্ষমতায় আসবে বলে আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস।

আগামী এপ্রিল মাসে প্রাক্তন IPS আধিকারিকের চাকরির মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিল। তার আগেই চাকরি থেকে ইস্তফা দেন তিনি। স্বাভাবিকভাবেই অবসরের মাস তিনেক আগে চাকরি ইস্তফা দেওয়ায় জল্পনা তৈরি হয়েছিল। তবে তিনি বলেছিলেন, ব্যক্তিগত কারণেই এই সিদ্ধান্ত। ২০০৩ ব্যাচের এই প্রাক্তন IPS আধিকারিকের স্ত্রী অনিন্দিতা কবীর আগেই তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন।

অবশেষে সত্যি হল জল্পনা। মঙ্গলবার কালনার সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের  উপস্থিতিতে তৃণমূলে যোগ দিলেন চন্দননগরের প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার। দিনকয়েক আগে তাঁর স্ত্রী অনিন্দিতাও যোগ দিয়েছিলেন তৃণমূলে। দলে যোগ দেওয়ার পর বিধানসভা ভোটে জেতার বিষয়ে আত্মপ্রত্যয়ের সুর শোনা যায় হুমায়ুন কবীরের গলায়। সামনেই বিধানসভা নির্বাচন । তার আগে তৃণমূলে ভাঙন যেন লেগেই রয়েছে। একের পর এক নেতা-মন্ত্রী যোগ দিচ্ছেন গেরুয়া শিবিরে। লম্বা হচ্ছে ‘বেসুরো’দের তালিকাও। যা নিয়ে রীতিমতো অস্বস্তিতে তৃণমূল। এই পরিস্থিতিতে হুমায়ুন কবীরের শাসক শিবিরে যোগদান যেন অক্সিজেন জোগাচ্ছে শীর্ষনেতৃত্বকে।

উল্লেখ্য, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের সঙ্গেও একসময় অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ ছিলেন হুমায়ুন কবীর। পুলিশ জীবনে রীতিমতো দাপটের সঙ্গে নিজের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। কলকাতার যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গন থেকে হাতকাটা দিলীপকে গ্রেফতার করেছিলেন তিনিই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.