জনসেবার মধ্য দিয়ে ক্যালকাটা ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরির ফার্মেসী ও পলিক্লিনিকের উদ্বোধন

Spread the love

জনসেবার মধ্য দিয়ে ক্যালকাটা ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরির ফার্মেসী ও পলিক্লিনিকের উদ্বোধন

পরিমল কর্মকার (কলকাতা) : ৬০ বছর ধরে চলে আসা বেহালার অন্যতম প্যাথলজিক্যাল ল্যাবরেটরির নাম ক্যালকাটা ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরি (CCL)। একসময় বেহালার পাঠকপাড়ায় ছোট্ট পরিসরে ল্যাবটির গোড়াপত্তন হয়েছিল।

তারপর থেকে তিল তিল করে গড়ে ওঠা এই প্রতিষ্ঠানকে বড় আঙ্গিকে পরিণত করেন সংস্থার কর্ণধার জয়ন্ত ভদ্র। পাঠকপাড়ার পুরোনো বিল্ডিং থেকে বহুদিন আগেই বেহালার রায়বাহাদুর রোডের নতুন বিল্ডিংয়ে বেশ বড় পরিসরে স্থানান্তর হয়েছিল এই ল্যাবের। ক্রমান্বয়ে স্থানীয় অন্যান্য সমস্ত ল্যাবকে ছাপিয়ে রক্ত পরীক্ষার নিরিখে বহুদূর পৌঁছে যায় CCL এর নাম। এরপর আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি সংস্থার কর্ণধারকে। এরপর শুধুই বাণিজ্যিক সাফল্য, আর সাফল্য। এই সাফল্যকে হাতিয়ার করেই আরও বড়-সর পরিপূর্ণতার রূপ দিতে ২৯ আগস্ট এক জনসেবার মধ্য দিয়ে এরসঙ্গে নতুন ভাবে যুক্ত করা হলো — CCL ফার্মেসী ও CCL পলি ক্লিনিক নামের দু’টি বিভাগকে।

প্রসঙ্গত: ২৯ আগস্ট এর উদ্বোধন উপলক্ষে বিনাখরচে সাধারণ মানুষের রক্ত পরীক্ষা ও স্বাস্থ্য পরীক্ষার আয়োজন করেছিল CCL কতৃপক্ষ। জানা গিয়েছে, দু’শোরও বেশি মানুষ এদিন এই পরিষেবা পেয়েছেন। সংস্থার কর্ণধার জয়ন্ত ভদ্র জানিয়েছেন, সমাজের বিভিন্ন মানুষকে পরিষেবা দেওয়ায় লক্ষ্য নিয়ে জনসেবার মধ্য দিয়েই সূচনা হলো CCL এর ফার্মেসী ও পলিক্লিনিক বিভাগ। অভিজ্ঞ এবং বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা যুক্ত থাকবেন এই পলিক্লিনিকে। আর ফার্মেসীতে থাকবে সমস্ত ধরনের ওষুধ-পত্র। যাতে প্রেসক্রিপশন নিয়ে রোগীর পরিজনেরা এখানে এলেই পেয়ে যাবেন তাদের প্রয়োজনীয় ওষুধ-পত্র।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ঠ শিশু চিকিৎসক ডাঃ সুনীল নাগ সহ বিশিষ্ঠ চিকিৎসকেরা, উপস্থিত ছিলেন — তৃণমুল নেতা শঙ্কর ঘোষ, সাউথ সুবার্বন ট্রেডার্স এ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক অরুণ ঘোষ সহ ব্যবসায়ী সমিতির ভানু দাস, বাপি দাস মজুমদার, সন্দীপ মুখার্জী, নগেন সাঁধুখা প্রমুখ কর্মকর্তারা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.