বেহালায় দীপক স্মৃতি সংঘের কালীপূজার উদ্বোধন

Spread the love

বেহালায় দীপক স্মৃতি সংঘের কালীপূজার উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিনিধি (কলকাতা) : বেহালার ১২১ নম্বর ওয়ার্ডে প্রফুল্ল সেন কলোনীতে শনিবার (২২অক্টোবর) দীপক স্মৃতি সংঘের কালীপূজা উদ্বোধন হলো। উদ্বোধন করলেন স্থানীয় কাউন্সিলর রূপক গাঙ্গুলী। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মঞ্চে রূপক গাঙ্গুলী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন টিভি সিরিয়াল খ্যাত অভিনেতা সোহেল দত্ত, ঋদ্ধিমান, সাংবাদিক পরিমল কর্মকার সহ ক্লাবের কর্মকর্তারা ও স্থানীয় তৃণমুলের অগণিত পুরুষ ও মহিলা কর্মীরা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন পূজার অন্যতম উদ্যোক্তা সোমনাথ ব্যানার্জী (বাবন)।

এদিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে কাউন্সিলর রূপক গাঙ্গুলী বলেন, তার এক নিকটাত্মীয় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন। তার চিকিৎসা পরিষেবার জন্য তাকে ছোটাছুটি করতে হচ্ছে। তবুও এই দীপক স্মৃতি সংঘের কোনো অনুষ্ঠান তিনি কোনোদিনই এড়িয়ে যেতে পারেন না। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, তাকে কাউন্সিলর করার জন্য বাবন ব্যানার্জীর সহযোগিতা এবং এখানকার মানুষের অবদান তিনি কখনোই ভুলতে পারবেন না।

সাংবাদিক পরিমল কর্মকার বলেন, এখানকার মানুষের সংঘবদ্ধ প্রয়াসে এলাকার প্রতিটি মানুষের মধ্যে এক সুন্দর মেলবন্ধন গড়ে উঠেছে। যারজন্য এখানে পুজো-উৎসব থেকে শুরু করে প্রতিটি সামাজিক কর্মসূচি ধুমধামের সঙ্গে পালিত হয়। এইসঙ্গেই তিনি বলেন, বিগত ২ বছর ধরে “করোনা” ব্যাধি জনজীবন বিপর্যস্ত করেছে। আপাতত: করোনা বিদায় নিলেও এখন আবার “ডেঙ্গু”র উদ্ভব হয়েছে। এই রোগ থেকে সকলকে সতর্ক ও সচেতন থাকার জন্য আবেদন জানান তিনি।

অভিনেতা সোহেল দত্ত বলেন, তিনি এই পাড়ারই ছেলে। তাই এখানকার যে কোনো কর্মসূচিতে পাশে থাকতে তিনি গর্ব অনুভব করেন।

সর্বোপরি, দীপক স্মৃতি সংঘের কালীপূজা বেহালায় অন্যতম বড় পুজা হিসেবে দর্শকদের মন কাড়বে তাতে কোনো সন্দেহই নেই। কালীমূর্তি থেকে শুরু করে বাংলা ঘরানার মণ্ডপসজ্জা ও আলোকসজ্জা — এক কথায় দৃষ্টিনন্দন। এদিন ক্লাবের পক্ষ থেকে এলাকার ছোটো ছোটো বাচ্চাদের হাতে পরিবেশ বান্ধব আতস বাজী তুলে দেওয়া হয়। স্বভাবতই: বাজী পেয়ে বাচ্চারা বেজায় খুশি। তারই প্রতিফলন দেখা গেল তাদের চোখে মুখে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.