“সুফল বাংলা বিপণি”র উদ্বোধন বেহালায়

Spread the love

“সুফল বাংলা বিপণি”র উদ্বোধন বেহালায়

পরিমল কর্মকার (কলকাতা) : শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বেহালার ১৩২ নম্বর ওয়ার্ডে ও.ডি.আর.সি কোয়ার্টার ক্যাম্পাসের স্কুল মাঠে সঞ্চিতা মিত্রের তত্ত্বাবধানে উদ্বোধন হলো পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কৃষিজ বিপনন বিভাগের “সুফল বাংলা বিপণি”র স্টল। উদ্বোধন করলেন রাজ্যের কৃষি বিপনন মন্ত্রী বেচারাম মান্না। পাশাপাশি এদিন ১২৫ নম্বর ওয়ার্ডে এবং ১২৮ নম্বর ওয়ার্ডেও উদ্বোধন হলো “সুফল বাংলা বিপণি”।

এদিন ও.ডি.আর.সি কোয়ার্টারের স্কুল মাঠে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কৃষি বিপণন মন্ত্রী বেচারাম মান্না ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন — বিধায়িকা রত্না চট্টোপাধ্যায়, বিশিষ্ঠ তৃণমূল নেতা অঞ্জন দাস, বরো চেয়ারম্যান সংহিতা দাস ও সুদীপ পোল্লে। মেয়র পারিষদ তারক সিং, কাউন্সিলর সঞ্চিতা মিত্র, রত্না সরকার, পার্থ সরকার, তৃণমুল নেতা শঙ্কর ঘোষ, সুফল বাংলা প্রজেক্ট-এর ডাইরেক্টর গৌতম মুখার্জী সহ এলাকার বিশিষ্ঠ মানুষেরা।

অনুষ্ঠানের বক্তব্য রাখতে গিয়ে মন্ত্রী বেচারাম মান্না বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের স্বপ্নের প্রকল্প সুফল বাংলার দু’টি অভিমুখ ছিল। তার একটি ছিল কৃষকদের উৎপাদিত ফসলের ন্যায্য মূল্য যেন তারা পান। আরেকটি ছিল শহরের সাধারণ মানুষ যেন সস্তায় সবজি কিনতে পারেন।

১৩২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সঞ্চিতা মিত্র বলেন, তার ওয়ার্ডে পর্ণশ্রী বাসস্ট্যান্ডে সুফল বাংলার স্ট্যাইলে একটি স্টল রয়েছে সেখানে মাত্র দেড় ঘণ্টায় সমস্ত সবজি বিক্রি হয়ে যায়। তাই তিনি মন্ত্রী বেচারাম মান্নার কাছে আবেদন রাখেন, “সুফল বাংলা বিপণি” যাতে আরও ছড়িয়ে দেওয়া যায় তার জন্য সহযোগিতা করতে। ও.ডি.আর.সি কোয়ার্টারের এই নতুন স্টল থেকেও আশানুরূপ ভাবে প্রচুর সবজি বিক্রি হবে বলে তিনি তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন।

বিশিষ্ঠ তৃণমূল নেতা অঞ্জন দাস বলেন, “সুফল বাংলা বিপণি” নামটার সঙ্গে অনেকেরই পরিচয় ছিল, কিন্তু এরমধ্যে যে এতবড় কর্মকাণ্ড লুকিয়ে আছে তা এখানে না এলে বোঝা যেত না। সবচেয়ে বড় কথা, অনেক কম দামে টাটকা সবজি এই বিপণি থেকে পাওয়া যাচ্ছে — এতে সাধারণ মধ্যবিত্ত মানুষেরা উপকৃত হবেন বলে জানান তিনি।

বেহালা পুর্ব কেন্দ্রের বিধায়িকা রত্না চট্টোপাধ্যায় বলেন, মমতা বন্দোপাধ্যায় সব সময় মানুষের পাশে থাকেন। সাধারণ মানুষের জন্য সুফল বাংলা বিপণি, কন্যাশ্রী, রূপশ্রী, স্বাস্থ্যসাথী সহ একগুচ্ছ জনমুখী প্রকল্প তার হাত ধরেই রূপায়িত হয়েছে। সুফল বাংলা বিপনির মাধ্যমে সস্তায় তাজা সবজি মানুষের দরবারে পৌঁছে যাচ্ছে। সারা বাংলায় ইতিমধ্যেই মোট ৩৬৫ টি সুফল বাংলার স্টল চালু হয়েছে বলে জানান তিনি। অন্যন্য উপস্থিত বক্তারাও সুফল বাংলা বিপণি সম্পর্কে বিস্তারিত ব্যাখ্যা দেন।

ছবি : রিমা শিকদার ও স্বপন নস্কর।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.