সচীন কে প্রশ্ন অধীর চৌধুরীর ” দিল্লির দাঙ্গার সময় কেন চুপ ছিলেন?”

Spread the love

নিউজ ডেস্ক :- কৃষক আন্দোলন নিয়ে বাড়ছে উত্তাপ ,বাড়ছে চাপ ।ঃ      সচীন কে প্রশ্ন অধীর চৌধুরীর ” দিল্লির দাঙ্গার সময় কেন চুপ ছিলেন?”   লোকসভায় কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী কৃষকদের সমর্থনে পরিবেশবিদ গ্রেটা থানবার্গের টুইট প্রসঙ্গে সরকারকে আক্রমণ করেছেন। কংগ্রেস নেতা অভিযোগ করেছেন যে, গ্রেটা বাচ্চা মেয়ে। তা সত্ত্বেও সরকার তার টুইট দেখে এতটাই ভয় পেয়েছে যে তারা দেশের বড় বড় মানুষকে জবাব দিতে বলে বাধ্য করছে।” অধীর রঞ্জন বিশেষত সচীন তেন্ডুলকরকে একহাত নিয়েছেন। তিনি প্রশ্ন করেন, “দিল্লিতে দাঙ্গা চলাকালীন সচীন কেন চুপ ছিলেন?”

অধীর রঞ্জন চৌধুরী শুক্রবার বেশ কয়েকটি টুইট করেছেন, যার মাধ্যমে তিনি মোদী সরকারের সমর্থনে আগত বলিউড তারকা এবং ক্রিকেটারদের তীব্রভাবে কটাক্ষ করেছেন। অধীর চৌধুরী বলেন, “আজ পৃথিবী একটি গ্রামে পরিণত হয়েছে। যদি কোথাও কিছু ঘটে থাকে তবে তা বিশ্বজুড়ে আলোচিত হয়। আমেরিকাতে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গোটা বিশ্ব নিন্দা করেছিল। ভারত থেকেও আওয়াজ উঠেছিল। আমরাও আমাদের ভয়েস তুলেছি।” সরকারি ফরম্যান নিয়ে গ্রেটার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নামার জন্য ফিল্ম স্টার ও ক্রিকেটারদের লক্ষ্য করে অধীর চৌধুরী বলেছেন যে, “এই তারকা ও ক্রিকেটাররা যারা আজ বড় জাতীয়তাবাদী হয়ে উঠছেন আমি তাদের প্রশ্ন করতে চাই যে দিল্লিতে যখন দাঙ্গা হয়েছিল সিএএর বিরুদ্ধে আন্দোলন হয়েছিল চীন ভারতের ভূমি দখল করচিল তখন তারা কেন প্রতিবাদ করল না?

ক্রিকেটের তথাকথিত ঐশ্বর সচীন তেন্ডুলকরের নাম করেই অধীর চৌধুরী বলেছেন যে, “আজ লক্ষ লক্ষ কৃষক আন্দোলন করছেন। তারা কোনও দলের লোক নয়। সচীন যখন দেশের হয়ে খেলতে গিয়ে ছক্কা মারতেন, যখন সেঞ্চুরি করতেন এই কৃষকরা খুশি হত। সচীন যখন কোনও ম্যাচে ব্যর্থ হ্ত এই কৃষকরাই দুঃখ পেতেন। আমিও সচীনের ভক্ত। তবে আমি তাদের পরামর্শ দিতে চাই যে সরকারের ষড়যন্ত্রে ধরা না পড়লে ভাল হয়।” কংগ্রেস নেতা আরও বলেছেন যে, “সচীনের আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে নিজেকে জিজ্ঞাসা করা উচিত ভারতে যখন হৃদয় বিদারক ঘটনা ঘটে তখন চুপ থাকেন কেন? দাঙ্গা নিয়ে কেন দুঃখ নেই? কেন কখনও এনআরসি নিয়ে বিবেচনা করেন না? চীন কর্তৃক ২০ জন সেনা নিহত, টুইট করেননি কেন?

সৌজন্য :- কোলকাতা টাইমস 24*7

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.