স্বাস্থ্য পরিষেবা উন্নতির দাবিতে মুখ্যমন্ত্রিকে চিঠি এসডিপিআই এর

Spread the love

স্বাস্থ্য পরিষেবা উন্নতির দাবিতে মুখ্যমন্ত্রিকে চিঠি দ এসডিপিআই এর

ইমাম সাফী :-     উত্তরবঙ্গের জেলাগুলি থেকে রোগীদের চিকিৎসা পরিষেবা পেতে যখন-তখন কলকাতা ছুটতে না হয় সে জন্য উত্তরবঙ্গের চিকিৎসা পরিকাঠামোর কিছু পরিবর্তনের দাবি জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিল এসডিপিআই। সেখানে এইমসের দ্রুত বাস্তবায়ন এবং জেলা হাসপাতালের সঙ্গে কলকাতার এসএসকেএম বা বড় বড় হাসপাতালে চিকিৎসার সমন্বয়ের জন্য ভিডিও কনফারেন্সের ব্যবস্থা রাখার দাবি তোলা হয়। এমনকি এ জন্য প্রয়োজনে পনেরো থেকে কুড়ি জনের একটি বিশেষজ্ঞ টিমের প্রস্তুত রাখার দাবি করা হয় সেই স্মারকলিপিতে। যাতে করে মুড়ি-মুড়কির মতো রেফার করা না হয় এবং জেলা হাসপাতালগুলোতে বসেই ভিডিও কনফারেন্সিং সিস্টেমের মাধ্যমে প্রযুক্তিকে ব্যবহার করে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শক্রমে জেলার হাসপাতালগুলিতেই রোগীরা চিকিৎসা পরিষেবা পেয়ে উপকৃত হতে পারেন। সংগঠনের রাজ্য সভাপতি তায়েদুল ইসলাম বলেন শুধু উত্তরবঙ্গ নয় দূরবর্তী জেলাগুলোর জেলা হাসপাতালগুলোতেও যদি এই ব্যবস্থা করা হয় তা হলে মানুষ খুবই উপকৃত হবেন। তাদের দূর দূরান্ত পাড়ি দিতে হবে না। আশা করা যায় সাকিবুলের মতো আর কাউকে এমনভাবে বেঘোরে মারা পড়তে হবে না। তায়েদুল আরো দাবি করেন যদি রাজ্যের বেসরকারি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালগুলো বিদেশের সঙ্গে যোগাযোগ করে এই পদ্ধতিতে চিকিৎসা করে রোগীদের পরিষেবা দিতে পারেন, তাহলে কেন রাজ্যের সরকারি হাসপাতালগুলোতে এই পরিষেবার রূপায়ণ করা যাবে না ? প্রসঙ্গত কিছুদিন আগে মালদার যুবক সাকিবুল ইসলামকে কলকাতায় চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। তাকে মালদা জেলা হাসপাতাল থেকে এসএসকেএম-এ রেফার করা হয়েছিল। কিন্তু পথে এক সংগঠনের উদ্যোগে অবরোধ করা হয় এবং সে অবরোধে আটকে পড়ে সাকিবুল। সে পৌঁছতে পারেনি কলকাতার হাসপাতালে। পথেই মারা যায় সাকিবু্ল। তার প্রেক্ষিতে জনস্বার্থে সরব হয় এসডিপিআই।
তায়েদুল আরো বলেন যত দ্রুত সম্ভব এইমস উত্তরবঙ্গে তৈরি করা হোক। বিশেষত মালদা মুর্শিদাবাদ জেলার যে কোনো একটি জেলাতে বা রায়গঞ্জে দ্রুত তা তৈরি করা হোক। এইমস হাসপাতাল দ্রুত রুপায়ন না হওয়ার প্রেক্ষিতে ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলগুলোর সদিচ্ছার অভাবের তীব্র নিন্দা করেন তিনি। তিনি বলেন এইমস না হওয়ার পিছনে রয়েছে শুধুমাত্র রাজনৈতিক দলগুলোর ইগো এবং সদিচ্ছার অভাব। কে ক্রেডিট নেবে। আর তাদের ইগোর বলি হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। অবিলম্বে এই ইগো দূর করে তারা জনস্বার্থে মালদা মুর্শিদাবাদে এইমস প্রতিষ্ঠা করতে উদ্যোগী হোক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.