বিজেপিতে শুভেন্দুর গুরত্ব কি কমছে,উপনির্বাচনের দায়িত্ব থেকে শুভেন্দুকে ছেঁটে ফেলল বিজেপি

Spread the love

– উপনির্বাচনের দায়িত্ব থেকে শুভেন্দুকে ছেঁটে ফেলল বিজেপি? উঠছে প্রশ্ন.শুভেন্দুর গুরত্ব কি কমছে

নিউজ ডেস্ক .অয়ন বাংলা :-
শেষ হয়েছে তিনটি কেন্দ্রের উপনির্বাচন। অক্টোবরেই বাংলার আরও চারটি বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচন রয়েছে। সেই চার বিধানসভা উপনির্বাচনের জন্য বাংলায় বিজেপির নির্বাচনী কমিটি সম্পূর্ণ ঢেলে সাজিয়ে সেখানে পছন্দসই সাংসদ এবং বিধায়কদের দায়িত্ব দিয়েছে। আশ্চর্যজনকভাবে সুকান্ত মজুমদারের তৈরি বিজেপি রাজ্য কমিটি এই নতুন নির্বাচনী কমিটিতে জায়গা হয়নি বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। রাজনৈতিক মহলের মতে, দিলীপ ঘোষকে রাজ্য সভাপতি পদ থেকে অপসারণ করে বালুরঘাটের বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদার কে রাজ্য সভাপতি পদে বসানোর পিছনে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের লক্ষ্য ছিল দলের ভাঙনরোধ।
ad

প্রসঙ্গত, বাংলায় দিলীপ ঘোষ রাজ্য সভাপতি থাকাকালীন বিভিন্ন জায়গায় বিজেপির জন্য জনসমর্থন এবং সংগঠন তৈরি হয়েছিল শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকে তা ধীরে ধীরে ফিকে হয়ে যায়। এমনকী দিলীপ ঘোষ গোষ্ঠীতে কম গুরুত্ব দিয়ে শুভেন্দু অধিকারীকে বিরোধী দলনেতা পদে বসানোর পরই একের পর এক বিজেপি বিধায়ক দল ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিতে শুরু করেছেন।
ad

উল্লেখ্য, ভবানীপুর বিধানসভা উপ নির্বাচনে মমতার বিরুদ্ধে বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিবরেয়ালের সমর্থনে নির্বাচনী প্রচার করতে গিয়ে শুভেন্দু অধিকারী যহিন্দু এবং মুসলমানদের মধ্যে বিভাজনের রাজনীতি শুরু করেছিলেন। তার ফল হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছে পদ্মশিবির। শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে বিজেপি প্রার্থী রুদ্রনীল ঘোষ যা ভোট পেয়েছিলেন, এবারের উপনির্বাচনে তা কমেছে অনেকটাই। যা দুশ্চিন্তায় ফেলেছে বিজেপির দিল্লীর নেতাদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.