Farmers protest: যোগী রাজ্যে মন্ত্রীর কনভয়ের গাড়িতে চাপা পড়ে কৃষকের মৃত্যু,গোটা দেশ জুড়ে আন্দোলনের ডাক সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার

Spread the love

ওয়েব ডেস্ক :- কৃষক আন্দোলন ঘিরে ধুন্ধুমার উত্তরপ্রদেশে। লখিমপুর খেরি এলাকায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর কনভয়ে চাপা পড়ে কয়েকজন প্রতিবাদী কৃষকের মৃত্যুর অভিযোগ সংগঠনের। ঘটনায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলে আশিস মিশ্রের জড়িত থাকার অভিযোগ করেছেন কৃষকরা। আশিসের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করার দাবিও তুলেছেন তাঁরা। ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘লখিমপুর খেরির বর্ররোচিত ঘটনার তীব্র বিরোধিতা করছি। কৃষকদের প্রতি বিজেপি-র উদাসীন মনোভাব আমাকে গভীর যন্ত্রণা দিয়েছে। আগামিকাল (সোমবার) তৃণমূলের পাঁচ সাংসদের দল আক্রান্ত কৃষক পরিবারের সঙ্গে দেখা করবে। আমাদের কৃষকদের আমরা নিঃশর্ত সমর্থন করছি।’ শোক প্রকাশ করেছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। তিনি সংবাদ সংস্থাকে বলেছেন, ‘‘দ্রুত তদন্ত হবে, অভিযুক্তরা শাস্তি পাবে।’’

রবিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ঘটনায় ঠিক কত জনের মৃত্যু হয়েছে, তা স্পষ্ট নয়। সংযুক্ত কৃষক মোর্চার তরফ থেকে দাবি করা হয়েছে, রবিবার উত্তরপ্রদেশের উপমুখ্যমন্ত্রী কেশবপ্রসাদ মৌর্য ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রর সফরকে কেন্দ্র করে প্রতিবাদের আয়োজন করা হয় লখিমপুর খেরিতে। সেখানে হাজার হাজার কৃষক জড়ো হয়েছিলেন। সেখানেই অজয় মিশ্রর ছেলে আশিস গাড়ি চাপা দিয়ে প্রতিবাদী কৃষকদের মারেন বলে অভিযোগ উঠেছে। সেই ঘটনায় চার জনের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছে সংযুক্ত কিসান মোর্চা। অন্য দিকে লখিমপুর খেরির অতিরিক্ত পুলিস সুপারকে উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা দাবি করেছে, মোট মৃত্যু হয়েছে আট জনের। যাঁদের মধ্যে কৃষকরাও রয়েছেন। এর মধ্যে দু’জনের মৃত্যু হয়েছে মন্ত্রীর কনভয়ের গাড়িতে চাপা পড়ে। যে গাড়িতে মন্ত্রী-পুত্র ছিলেন। যদিও বাকিদের কী ভাবে মৃত্যু হয়েছে তা স্পষ্ট নয়। কিসান মোর্চার তরফ থেকে দাবি করা হয়েছে, মন্ত্রী-পুত্র গুলি করে এক প্রতিবাদী কৃষককে মেরেছেন। তবে সবটাই এখনও অস্পষ্ট।

তিন কৃষি আইন নিয়ে উত্তাল দেশ। এই আন্দোলনের সর্বাধিক প্রভাব পড়েছে উত্তর ভারতে। যোগীরাজ্য উত্তরপ্রদেশও এর ব্যতিক্রম নয়। এরই মধ্যে কৃষক আন্দোলনকে কেন্দ্র করে ঘটে গেল এক দুর্ঘটনা যার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোবলয়ের এই রাজ্যে।

ঠিক কি ঘটেছে? অভিযোগ আন্দোলনরত কৃষকদের উপর গাড়ি চালিয়ে দিয়েছেন কেন্দ্রের মোদি মন্ত্রীসভার মন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলে। তাতে মৃত্যু হয় ২ কৃষকের। গুরুতর আহত ৪। এই দুর্ঘটনার পরই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন চাষীরা। দুর্ঘটনাস্থল লখিমপুর খেরি রণক্ষেত্রের চেহারা নেয়। আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে তিনটি গাড়িতে।

টিকুনিয়া নামক এক যায়গায় রাজ্যের উপমুখ‌্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্যের আসার‌ কথা ছিল। তাই দলবদ্ধভাবে কৃষকেরা সেখানে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিল। এহেন সময় সেখানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় মিশ্রের পুত্র আশীষ মিশ্র এসে উপস্থিত হন। তাঁর সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় কৃষকদের। এরপরেই কৃষকদের উপর দিয়ে আচমকা গাড়ি চালিয়ে দেন আশীষ। ভারতীয় কিষান ইউনিয়ন-এর দাবি, দুই নয়, তিনজনের কৃষকের ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয়েছে।

ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন সমাজবাদী পার্টি সুপ্রিমো অখিলেশ যাদব। এক টুইট বার্তায় তিনি লেখেন, “কৃষি আইনের বিরুদ্ধে শান্তিপূর্ণ বিরোধিতা করছিলেন কৃষকরা। তখনই বিজেপি সরকারের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর ছেলে গাড়ি দিয়ে তাঁদের পিষে দিয়ে এক অমানবিক ও নিষ্ঠুর কাণ্ড ঘটান। উত্তরপ্রদেশ আর বিজেপির এই অত্যাচার সহ্য করবে না। এইভাবে চলতে থাকলে বিজেপি আর গাড়ি চড়তে পারবে না, নামতেও পারবে না।”

ঘটনার প্রতিবাদে দেশ জুড়ে বিক্ষোভ কর্মসূচির ডাক দিয়েছে সংযুক্ত কিসান মোর্চা। সোমবার বেলা ১টা থেকে দেশের জেলায় জেলায় জেলাশাসকের অফিসের সামনে প্রতিবাদ কর্মসূচি সংগঠিত করার ডাক দেওয়া হয়েছে। কৃষক নেতা রাকেশ টিকায়েত জানিয়েছেন, ইতিমধ্যে পঞ্জাব ও হরিয়ানা থেকে প্রতিবাদী কৃষকরা উত্তরপ্রদেশে আসতে  শুরু করেছেন। ঘটনায় ১০ জন আহত হয়েছেন বলেও দাবি করা হয়েছে কৃষক সংগঠনের তরফ থেকে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.