পুর নির্বাচনে বেহালার ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূলের সম্ভাব্য প্রার্থী রত্না চট্টোপাধ্যায়

Spread the love

পুর নির্বাচনে বেহালার ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূলের সম্ভাব্য প্রার্থী রত্না চট্টোপাধ্যায়

পরিমল কর্মকার (কলকাতা) : সূত্রের খবর অনুযায়ী রাজ্যের ১১৩ টি পুরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে চলেছে আগামী জানুয়ারি মাসের শেষ দিকে। বিগত বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিজেপিকে ধুলিস্যাৎ করার পর তৃণমূলে এখন নেতা ও পার্টি কর্মীদের জনজোয়ার। তাই পুরসভায় প্রার্থী হওয়ার জন্য এই মুহূর্তে বহু নেতা-কর্মীই লাইনে রয়েছেন বলে সূত্রের খবর। তবে এবার বেছে বেছে যোগ্য নেতা-কর্মীদেরই টিকিট দেবে দল, এমনটাই খবর। ইতিপূর্বে যারা মানুষের পাশে থেকে কাজ করেছেন বা এখনও করে চলেছেন তাদেরকেই দল অগ্রাধিকার দেবে বলে ধারণা রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের। এক্ষেত্রে বেহালা পূর্বের বিধায়িকা রত্না চট্টোপাধ্যায় অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন। তাই বেহালার ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডের সম্ভাব্য প্রার্থী তিনিই হতে চলেছেন বলে  বিশ্বস্ত সূত্রের খবর।

প্রসঙ্গত: ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শোভন চট্টোপাধ্যায় বিজেপিতে যোগদান করার পর আজ ৪ বছর ধরে ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডটি কার্যত: কাউন্সিলরহীন অবস্থায় পড়ে রয়েছে। সম্প্রতি শোভন-বৈশাখী বিজেপি ছেড়ে দিয়েছেন বলে সংবাদমাধ্যমে প্রচারিত হলেও তারা এখনও কোনো রাজনৈতিক দলে নাম লেখান নি। এই পরিস্থিতিতে শোভনবাবুর ফেলে যাওয়া ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডটি অভিভাবকহীন অবস্থায় পড়ে রয়েছে। তবে এই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কিংবা অভিভাবকের অভাব বুঝতে দেননি শোভন চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়। বিগত প্রায় ৪ বছর ধরে পুর পরিষেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে তিনি এলাকার মানুষের পাশে রয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। কাউন্সিলর না হওয়া সত্বেও মানুষের আপদে-বিপদে-সমস্যায় কাউন্সিলরের ভূমিকাতেই দেখা গিয়েছে রত্না চট্টোপাধ্যায়কে। দলীয় কর্মসূচি থেকে শুরু করে মিটিং-মিছিল সবেতেই রত্নাদেবীর ভূমিকা উল্লেখযোগ্য।

সবচেয়ে বড় কথা, রত্নাদেবী ছাড়া এই ওয়ার্ডটিকে সামলাতে পারবেন এমন কোনও পার্টি কর্মীর উপরেও দল হয়তো ভরসা করতে পারবেন না, এমনটাই ধারণা ওয়ার্ডের তৃণমূল কর্মীদের। কারণ হিসেবে তারা মনে করছেন অভিজ্ঞ রাজনীতিবিদ শোভন চট্টোপাধ্যায়ের পরিচালনায় দীর্ঘদিন ধরে ওয়ার্ডটি যেভাবে পরিচালিত হচ্ছিল, ঠিক সেইভাবেই তার ধারা অব্যাহত রেখে চলেছেন রত্না চট্টোপাধ্যায়। যেকোনো সামাজিক কাজেও দক্ষ ভূমিকা পালন করে চলেছেন রত্না। স্বাভাবিক কারণেই আসন্ন পুর নির্বাচনে এই ওয়ার্ডে কাজের নিরিখে দেখতে গেলে সম্ভাব্য প্রার্থী রত্না চট্টোপাধ্যায়, এমনটাই খবর বিশ্বস্ত সূত্রের।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.