এবার বিজেপির পঞ্চায়েত প্রধানের ২ কোটি টাকা ‘আত্মসাৎ’ মুরগীর খামারে

Spread the love

মুরগির খামার তৈরিতেও দুর্নীতি! ২ কোটি টাকা ‘আত্মসাৎ’ বিজেপির পঞ্চায়েত প্রধানের

নিউজ   ডেস্ক:- চলছে দেদার দুর্ণীতি শাসক দল হোক বিরোধী দলই হোক । একশো দিনের কাজে কোটি টাকা বিজেপি প্রধান নেতাদের খাওয়ার পর আবার আরো এক বিজেপি প্রধান নেতারা মুরগীর খামারের নামে আরো দু কোটি । বেকার ছেলেরা স্ব নির্ভর  হওয়ার চেষ্টা করলে পাই না লোন আর বিজেপি নেতাদের বলা মাত্র কোটি টাকা । এ যে পোয়া বারো ।      এবার মুরগির খামার তৈরিতেও দুর্নীতির অভিযোগ উঠল বিজেপির (BJP) পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, খামার তৈরির নামে প্রায় ২ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন মালদহের  বামনগোলা ব্লকের মহেশপুর-গোবিন্দপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান। যদিও অভিযোগ মানতে নারাজ অভিযুক্ত।

জানা গিয়েছে, মালদহের বামনগোলায় মহিলাদের স্বনির্ভর করতে প্রশাসনের তরফে মুরগির খামার তৈরির কাজ চলছে। অভিযোগ, খামার তৈরির যে কাজ করতে ৮ থেকে ১০ হাজার টাকা খরচ হয়, বিজেপি পরিচালিত পঞ্চায়েতের প্রধান সেই কাজের খরচ দেখিয়েছেন ১ লক্ষ ৪১ হাজার টাকা! তার দেওয়া খরচের হিসেব অনুযায়ী, ৫ টি টিনের দাম ৬০ হাজার টাকা। টিন লাগাতে যে স্ক্রু ব্যবহার করা হয়, তার দাম ধরা হয়েছে ১০ হাজার টাকা। এই হিসেব প্রকাশ্যে আসতেই প্রধান প্রতিমা মণ্ডলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সরব হয়েছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। তাঁদের অভিযোগ, খামার বাবদ ২ কোটি টাকা পকেটে পুড়েছেন প্রধান।

যদিও নিজের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ ভিত্তিহীন বলেই দাবি প্রধান প্রতিমা মণ্ডলের। তাঁর কথায়, “আমি খামার তৈরিতে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত ছিলাম না। অকারণে দোষারোপ করা হচ্ছে।” এ প্রসঙ্গে বামনগোলার বিডিও বলেন, ” অভিযোগ পেয়েছি। খতিয়ে দেখা হবে।” একই আশ্বাস দিয়েছেন জেলাশাসকও। তবে এই ঘটনায় বেশ বিপাকে জেলা বিজেপি নেতৃত্ব। ঘটনা প্রসঙ্গে উত্তর মালদার বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মু জানিয়েছেন, ” তদন্ত শেষ হলেই সত্য প্রকাশ্যে আসবে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে দোষীদের দল থেকে বহিষ্কার করা হবে।

এটাই এখন বাংলার ভবিতব্য।

সৌজন্য :- সংবাদ প্রতিদিন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.