পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় মুহাম্মদ সা.-কে নিয়ে নূপুর শর্মার মন্তব্যের নিন্দা করে প্রস্তাব পাশ

Spread the love

ওয়েব ডেস্ক :- সোমবার বিধানসভার অধিবেশন চলাকালীন উঠে আসে নুপূর শর্মা প্রসঙ্গ। শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়  বলেন, ”রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে আমরা সম্প্রীতি বজায় রাখার লক্ষ্যে অগ্রণী ভূমিকা নিয়েছি। তবে সারা দেশে যেভাবে সম্প্রীতি নষ্টের চেষ্টা হয়েছে, তা আসলে মূল বিষয় কর্মসংস্থান ও উন্নয়ন থেকে নজর ঘোরানোর চেষ্টা। ধর্মের নামে, বিজেপির এক মুখপাত্র মন্তব্যের জেরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের চেষ্টা চলছে। এই ধরনের মন্তব্য করা এবং তাকে ঘিরে উস্কানি দেওয়ার চেষ্টার বিরুদ্ধে অবিলম্বে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক।”

পয়গম্বর হজরত মুহাম্মদ সা. সম্পর্কে অবমাননাকর মন্তব্য করেছিলেন বিজেপির বহিষ্কৃত মুখপাত্র নূপুর শর্মা। তার বিরুদ্ধে জুড়ে প্রতিবাদ ধ্বনিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বিদেশেও নিন্দিত হয়েছে। এ রাজ্যেও নানা স্থানে প্রতিবাদ হচ্ছে। সেই সন্ধিক্ষণে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় সোমবার বিজেপি নেত্রী নূপুর শর্মার নবী মুহাম্মদ সা. সম্পর্কে মন্তব্যের নিন্দা করে একটি প্রস্তাব পাশ হল। রাজ্য সরকার নবী মুহাম্মদ সা. সম্পর্কে শর্মার মন্তব্যের নিন্দা করে প্রস্তাবটি পাশ করার সময় বিজেপি বিধায়করা ওয়াকআউট করেন। সম্ভবত এই প্রথম দেশের প্রথম কোনও রাজ্যের বিধানসভায় নূপুর শর্মার বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব পাশ হল। এ সম্পর্কে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘রাজ্যে যখন হিংসা হয়েছিল তখন আমরা ব্যবস্থা নিয়েছিলাম। কিন্তু এই মহিলাকে (নূপুর শর্মা) এখনও গ্রেফতার করা হল না কেন? আমি জানি তাকে গ্রেফতার করা হবে না। কলকাতা পুলিশের কাছে চার সপ্তাহের জন্য সময় চেয়েছেন তিনি। আজ তাকে পুলিশের সামনে হাজির করা হবে’।

এরপর মুখ্যমন্ত্রী সকলের কাছে আবেদন করে বলেন, ”আপনারা সকলে হাত তুলে পার্থদার প্রস্তাব সমর্থন করুন।” পরে তা গৃহীত হয়েছে। এদিকে, পয়গম্বরকে নিয়ে নুপূর শর্মার বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে তাঁর বিরুদ্ধে নারকেলডাঙা থানায় এফআইআর (FIR) দায়ের করেছিলেন জনৈক ব্যক্তি। তার ভিত্তিতে ২০ জুন অর্থাৎ আজ তাঁকে হাজিরার জন্য সমন পাঠানো হয়।  কিন্তু নুপূর শর্মা নিরাপত্তা ইস্য়ুর প্রসঙ্গ তুলে চার সপ্তাহের সময় চেয়েছেন। ইমেল পাঠিয়ে তিনি জানান, সুরক্ষা নিয়ে চিন্তিত, চার সপ্তাহ সময় দেওয়া হোক।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন বিধানসভায় ভাষণ দিচ্ছিলেন, তখনই শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে বিজেপি নেতারা বিক্ষোভ শুরু করেন। তবে, নবী মুহাম্মদ সা.কে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য তার জীবনের হুমকির কারণে নূপুর শর্মা কলকাতা পুলিশের সামনে হাজির হওয়ার জন্য চার সপ্তাহের সময় বাড়ানোর আবেদন করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.