বিড়ি শিল্পের উপর নতুন আইনের প্রতিবাদে রাজ্য সড়ক অবরোধ মহিলাদের

Spread the love

বিড়ি শিল্পের উপর নতুন আইনের প্রতিবাদে রাজ্য সড়ক অবরোধ মহিলাদের

রাজেন্দ্র নাথ দত্ত :মুর্শিদাবাদ :
বিড়ি শিল্পাঞ্চল হিসেবে মুর্শিদাবাদ জেলার সুতি ও অরঙ্গাবাদের নাম সুবিদিত। এলাকার সিংহ ভাগ মানুষের আয়ের প্রধান উত্‌স বলতে বিড়ি বাঁধাই। তাই ছেলেমেয়ে মানুষ করা থেকে মেয়ের বিয়ে দেওয়া সবেরই জন্য নিভর্র করতে হয় বিড়ির উপর। তাই কেউ কেউ আবার অরঙ্গাবাদকে বিড়ির শহর নামেই চেনেন। বিড়ি শিল্পের উপর নতুন আইনের কিছু পদক্ষেপ করেছে যা বিড়িশিল্পে সঙ্কটের অশনি সঙ্কেত বলেও ভাবছেন কেউ কেউ।তারই প্রতিবাদে রাজ্য সড়ক অবরোধ মহিলাদের, বিড়ি শিল্পের উপর নতুন আইনের প্রতিবাদ ও বিড়ি শিল্প সচল রাখার দাবিতে রাজ্য সড়ক অবরোধও বিডিও অফিস ঘেরাও বিক্ষোভ দেখালো মহিলারা। রবিবার মুর্শিদাবাদের সুতি-২ বিডিও অফিস প্রাঙ্গনে আয়োজিত এই বিক্ষোভ সমাবেশে এক হাজারেরও বেশি মহিলা সামিল হোন। অবিলম্বে নতুন কোটপা আইন প্রত্যাহার না করলে তাতে সিঁদুরে মেঘ দেখছেন স্থানীয় বাসিন্দারা আগামীদিনে বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন বিড়ি শ্রমিকরা। সাম্প্রতিক কালে তামাকের উপর নিয়ন্ত্রণ আনতে অনেকেই আশঙ্কা প্রকাশ করছেন শিল্পে যদি সত্যই মন্দা দেখা যায় তাহলে কী করে খাাবেন তাঁরা।অরঙ্গাবাদে শহরে রয়েছে প্রায় ৩০ টি মতো বিড়ির বড় কারখানা। ছোট কারখানা রয়েছে অন্তত গোটা দশেক। দৈনিক অন্তত চল্লিশ কোটি বিড়ি তৈরি হয় অরঙ্গাবাদে। কোনও কোনও পরিবার রয়েছে যাদের আয়ের একমাত্র উত্‌স বলতে বিড়ি বাধাঁই। আবার ছেলেমেয়েরা পড়াশোনা করে প্রতিষ্ঠিত হলেও বিড়ি বাঁধাইয়ের কাজ ছাড়তে পারেননি কেউ কেউ। তবুও বিড়ি বাঁধাইয়ের কাজ ছাড়তে পারেননি। শুধুমাত্র অরঙ্গাবাদ কলেজপাড়াতেই অন্তত ২৫ জন এমএ পাশ যুবকের দেখা মিলবে যাঁদের পরিবারের আয়ের একমাত্র উত্‌স বলতে বিড়ি বাঁধাই।এলাকায় শিক্ষার প্রসার ঘটলে সচেতনতা বাড়বে। তখন বিড়িতে বিপদ বুঝে ধীরে ধীরে শ্রমিকেরাই খুঁজে নেবে বিকল্প রুজির পথ।

বিড়ি শিল্পের উপর নতুন আইনের প্রতিবাদে রাজ্য সড়ক অবরোধ মহিলাদের

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.