ঐতিহাসিক মত সুপ্রিম কোর্টের ভিন ধর্ম ও অন্য বর্ণে বিয়ে মেনে নেওয়ার সময় এসেছে

Spread the love

নিউজ ডেস্ক :- এবার    ঐতিহাসিক মত সুপ্রিম কোর্টের ভিন ধর্ম ও অন্য বর্ণে বিয়ে মেনে নেওয়ার সময় এসেছে  শুধু ভিন্ন ধর্মেই নয়। অন্য বর্ণে বিয়েও মেনে নেওয়ার সময় এসেছে বলে জানাল দেশের শীর্ষ আদালত। সুপ্রিম কোর্টের মন্তব্য, “কোনও পুরুষ বা মহিলার সম্পূর্ণ অধিকার আছে নিজের জীবনসঙ্গী পছন্দ করার। আর সেটা মেনে নিতে শিখতে হবে সমাজকে। এই শিক্ষার এখনই উৎকৃষ্ট সময়।”

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি সঞ্জয়কৃষ্ণ কৌল ও হৃষিকেশ রায়ের ডিভিশন বেঞ্চ মঙ্গলবার এক মামলার শুনানির সময় জানায়, ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বিয়ে মেনে নেওয়াটা খুবই জরুরি। এটি একটি সামাজিক অনুশীলনের মতো। অভিভাবকরা শুধু ভিন ধর্মে বিবাহের জন্য যদি নিজের সন্তানকে দূরে ঠেলে দেন, তা কখনওই আদর্শ সামাজিক রীতি হতে পারে না। কর্ণাটকের ভিন্ন ধর্মের এক অধ্যাপক-দম্পতি বাড়ির অমতে গিয়ে পালিয়ে বিয়ে করেন। সেখান থেকেই সমস্যার সূত্রপাত। মেয়েটির বাড়ি থেকে মেয়ে নিখোঁজের মামলা করায় ওই দম্পতি আদালতে আবেদনপত্র জমা দেয়।

ভারতের মতো দেশে যেখানে এখনও লাভ জেহাদ বা ভিন ধর্মে বিয়ে করলে মা-বাবা দুঃখপ্রকাশ করেন, সেখানে সুপ্রিম কোর্টের এই মন্তব্য বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন সমাজতত্ত্ববিদরা। সমাজের পাশাপাশি পুলিশকেও এই পরিস্থিতি সামাল দিতে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়ার কথা জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.